‘ম্যালেরিয়ার ওষুধ’ নিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প!


কোভিড-১৯ এর প্রতিষেধক হিসেবে নিয়মিত হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ম্যালেরিয়ার ওষুধ হিসেবে পরিচিত এই ওষুধ করোনা চিকিৎসায় ব্যবহারের পক্ষে দীর্ঘদিন ধরেই বলে আসছেন ট্রাম্প। তবে ওষুধটির কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ পোষণ করে ইতিমধ্যে সতর্ক করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ)।
স্থানীয় সময় সোমবার ডোনাল্ড ট্রাম্প সাংবাদিকদের জানান, গত দেড় সপ্তাহ ধরে তিনি প্রতিদিন একটি করে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন নিচ্ছেন। খবর রয়টার্সের।
ট্রাম্প জানান, সংক্রমণ ঠেকাতে তিনি অ্যাজিথ্রোমাইসিন অ্যান্টিবায়োটিকের সিঙ্গেল ডোজ নিচ্ছেন। এছাড়া হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন-এর পাশাপাশি তিনি জিঙ্কও গ্রহণ করছেন বলে জানান। ‘আর এখন পর্যন্ত আমি আপনাদের বলতে পারি আমি ভালোই আছি,’ বলেন ট্রাম্প।
করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে ৯০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ১৫ লাখ মানুষ। হোয়াইট হাউসের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তাও কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রতিদিন করোনা পরীক্ষা করাচ্ছেন। মহামারী থেকে বাঁচতে যুক্তরাষ্ট্রে ভ্যাকসিনের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে ভীষণভাবে।
এই ভাইরাসের প্রতিষেধক এখনও আবিষ্কৃত হয়নি। হাইড্রোক্সিুক্লোরোকুইন ওষুধ মূলত ম্যালেরিয়ার চিকিৎসায় ব্যবহার হয়। করোনাভাইরাসের এখন পর্যন্ত কোনো স্বীকৃত ওষুধ আবিষ্কৃত না হওয়ায় পরীক্ষামূলক হিসেবে এগুলো বিভিন্ন দেশে ব্যবহার হচ্ছে। করোনার চিকিৎসায় এগুলোর কার্যকারিতা নিয়ে এখনও নিশ্চিত নন বিশেষজ্ঞরা।
তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইতিমধ্যেই এটিকে ‘গেমচেঞ্জার’ আখ্যা দিয়েছেন।
তবে গত ২৪ এপ্রিল বিবৃতি দিয়ে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন ও ক্লোরোকুইন ব্যবহারের ক্ষেত্রে সতর্ক করে দেয় যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রাশাসন বিভাগ (এফডিএ)। ওই বিবৃতিতে বলা হয়, ওষুধ দুটি ব্যবহারের কারণে হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়তে পারে।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.