তন্ত্র সাধনার জন্য ছেলেকে হত্যার চেষ্টায় আটক পিতা ও তান্ত্রিক



তন্ত্র সাধনার জন্য ছেলেকে হত্যার চেষ্টায় আটক পিতা ও তান্ত্রিক  


তন্ত্র সাধনার জন্য নিজের ১০ বছরের পুত্র সন্তানকে মেরে সিদ্ধিলাভের ষড়যন্ত্রের অভিযোগ উঠলো বাবা ও এক তান্ত্রিকের বিরুদ্ধে৷ বুধবার রাতের এই ঘটনায় ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কালিয়াগঞ্জ থানার টুঙ্গইল বিলপাড়া এলাকায়। বুধবার রাতেই অভিযুক্ত পিতা দীলিপ সহ তান্ত্রিক মাহাতকে আটক করে কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ।  বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই নাবালক ছেলের মা কালিয়াগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে ঘটনার তদন্ত শুরু করে কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ৷



কালিয়াগঞ্জ থানার ভান্ডার গ্রাম পঞ্চায়েতের টুঙ্গইল বিলপাড়া এলাকায় মাহাত গলিচাদ বর্মনের উচু বেড়া দিয়ে ঘেরা বাড়ির দরজা বন্ধ করে উঠোনে ঠাকুরের বেদীর সামনে একটি গর্ত করছিল স্থানীয় বাসিন্দা  দিলীপ সরকার বলে অভিযোগ। অভিযোগ ধুপ জ্বালিয়ে পুজোর ফুল নিয়ে গর্ত করছিল পিতা দীলিপ এবং দিলীপের সাথে ছিল তান্ত্রিক মাহাত গলিচাদ বর্মন। দিলীপ তার নিজের সন্তান ক্লাস ফোরের ছাত্রকে ওই মাহাতের বাড়িতে নিয়ে গিয়েছিল বলে অভিযোগ৷ দিলীপের ছেলে জানিয়েছে তার বাবা টাকার হাড়ি মাটির গর্তের ভেতর থেকে তোলার জন্য তাকে নিয়ে গিয়েছিল। একবার গর্তের মাপ বোঝার জন্য গর্তে নামানোও হয়েছিল বলে অভিযোগ৷ পরে আবার গর্ত ছোট হওয়ায় গর্ত বড় করার কাজ শুরু করে দীলীপ ও মাহাত। কিন্তু স্থানীয় বাসিন্দাদের সন্দেহ হওয়ায় তারা ওই বাড়ির বেড়ার ফুটোতে চোখ রেখে কি ঘটতে যাচ্ছে তার খানিকটা অনুমান করে লোকজন জড়ো করে৷ বিপদ বুঝে পালাতে চেষ্টা করে দিলীপ ও মাহাত বলে অভিযোগ৷ তাদের আটকে কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয়৷ পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত দুজনকে আটক করে৷ বৃহস্পতিবার ওই নাবালকের মা কালিয়াগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করে।
এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ানোর পাশাপাশি আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। 


Loading...

No comments

Powered by Blogger.