করোনার প্রকোপে ফ্রান্সেই আটকা পড়ল ভারতের যুদ্ধবিমান



আগামী কয়েক মাসেও ভারতের মাটি ছুঁতে পারবে না রাফালের বাকি যুদ্ধবিমানগুলো। প্রথমে সরকারবিরোধী দলগুলোর তরজার পরে করোনার থাবা স্থগিত করে দিল রাফালে বিমানগুলোার ভারতে প্রবেশ। 
মে মাসের মধ্যেই ভারতের বায়ুসেনার হাতে পাঁচটি রাফালে বিমান আসার কথা থাকলেও করোনা সতর্কতায় উৎপাদন বন্ধ রেখেছে ফরাসি সংস্থা দাসো এভিয়েশন। তাই মে মাসেও ভারতের বিমানবাহিনী কাছে পৌঁছাচ্ছে না এই যুদ্ধবিমানগুলো। 
করোনা ভাইরাসের থাবায় স্থবির হয়ে পড়েছে ফ্রান্স। বর্তমানে ফ্রান্সে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪৫০। ‘লক ডাউন’ করে দেওয়া হয়েছে গোটা দেশ। কবিতার শহর প্যারিসে এখন আতঙ্কের পরিবেশ। মানুষের প্রাণ বাঁচাতে একদিকে যেমন বিদেশি পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে তেমনই দেশের মানুষের রাস্তায় বেরোনোতেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে রাফালে সরবরাহ সম্ভব নয় বলে জানায় দাসো এভিয়েশন।
দেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে মজবুত করতে রাফালে ফাইটার জেটের দরকার আছে বলেই জানিয়েছে ভারতের বিমান বাহিনী। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে ফ্রান্স সরকারের সঙ্গে চূড়ান্ত চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল ভারত। মোট ৩৬টি রাফালে কেনার বিষয়ে চুক্তি হয়েছিল।
ফ্রান্সের রাফালে নির্মাতা সংস্থা ‘দাসো অ্যাভিয়েশন’ জানিয়েছিল, মোট ৫৯ হাজার কোটি টাকা দামের ৩৬টি যুদ্ধবিমানের মধ্যে প্রথম চারটি ভারতে পৌঁছাবে ২০২০ সালের মে মাসে। গত বছর সেপ্টেম্বরে চুক্তিমাফিক ৩৬টির মধ্যে প্রথম রাফালেটি ভারতীয় বিমানবাহিনীর হাতে এসেছে। চলতি বছরের মে মাসের মধ্যে আরও পাঁচটি রাফালে দেওয়ার কথা ছিল দাসো এভিয়েশনের। 
Loading...

No comments

Powered by Blogger.