সর্দি, কাশির জন্য টেস্ট না করিয়ে বাড়িতে থাকার পরামর্শ ইমরানের

Image result for pakistan coronavirus imran khan

কোভিড-19 বা নভেল করোনা ভাইরাস এখনও পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে প্রাণ কেড়েছে ৮ হাজারের বেশি মানুষের। আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ছাড়িয়েছে। চিনের পর এই মারণ ভাইরাসে সবথেকে বেশি প্রভাবিত হয়েছে ইতালি ও ইউরোপের অন্যান্য দেশ। ভারতীয় উপমহাদেশেও এই ভাইরাস যথেষ্টভাবে থাবা ফেলেছে। এখানে সবথেকে বেশি প্রভাবিত ভারত বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির গতিতে সবার আগে রয়েছে পাকিস্তান। এখনও পর্যন্ত পাকিস্তানে ৩০৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন ক্রনা ভাইরাসে।

Image result for pakistan coronavirus imran khan

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে জানান হয়েছে, জ্বর, সর্দি, কাশি, গলা ব্যথা, শ্বাসকষ্টের মতো উপসর্গ দেখলে তড়িঘড়ি টেস্ট করাতে। সেখানে পাক প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ, “বাড়িতেই থাকুন, হাসপাতালে আসার প্রয়োজন নেই। পাক প্রধানমন্ত্রীর দাবি, করোনা এক ধরনের ফ্লু। ৯৭ শতাংশ ক্ষেত্রেই তা সেরে যায়। ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে স্রেফ কাশি, সর্দির মধ্যেই বিষয়টি সীমাবদ্ধ। বাকি ৪-৫ শতাংশ ক্ষেত্রে হাসপাতালে যাওয়ার প্রয়োজন হয়।  সোশ্যাল মিডিয়ায় ২টি ভিডিও বার্তায় ইমরান খান বলেছেন, আমেরিকার মতো বিত্তশালী দেশেও এতো মানুষকে একসঙ্গে চিকিৎসা করানোর মতো পরিষেবা নেই। তাঁর দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামোও যে উন্নত নয় তা কার্যত মেনেই নিয়েছেন তিনি। অনেক রোগী একসঙ্গে পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে চলে এলে তা সামাল দেওয়া তাঁদের পক্ষে কার্যত অসম্ভব। একমাত্র প্রবীণ নাগরিকদেরই হাসপাতালে যাওয়া উচিত, এমনই পরামর্শ ইমরান খানের। ইমরান খানের এই মন্তব্যের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর সমালোচনায় মুখর হয়েছেন নেটিজেনরা।  কেউ কেউ আবার বলেছেন শুধু ভাষণ না দিয়ে কার্যকরী কিছু পদক্ষেপ নিলে ভাল হয়।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.