প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরস্কার টয়লেট পেপার!


হংকংয়ের একটি দোকানে টয়লেট পেপার ডাকাতির কথা সবাই জেনেছে। শুধু হংকং নয়, করোনাভাইরাস সঙ্কটে টয়লেট পেপার নিয়ে হাহাকার পড়ে গিয়েছে সিঙ্গাপুর, জাপান, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া-সহ বহু দেশেই। হাহাকার এই পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, বাড়ির শৌচাগার থেকেও চুরি যাচ্ছে টয়লেট পেপার।
অস্ট্রেলিয়ায় সিডনির এক সুপারমার্কেটে গত বুধবার টয়লেট পেপার কেনা নিয়ে এক রকম হাতাহাতি বেঁধে গিয়েছিল। ছুরি নিয়ে হামলা করে এক যুবক। শেষে ঝামেলা থামাতে পুলিশ ডাকতে হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় লোকজনের #টয়লেটপেপারগেট, #টয়লেটপেপারক্রাইসিস দিয়ে একের পর এক পোস্ট, কমেন্টের বন্যা। ছবি-ভিডিওতে হাসি-মস্করাও চলছে- যেমন, প্রেমিকাকে টয়লেট পেপার উপহার দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব।
দোকানে ঘাটতি, অনলাইনে দাম বেড়েছে ওই বিশেষ কাগজের। সিডনির একটি রেডিও চ্যানেলে আবার প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল। প্রথম পুরস্কার- তিনটে টয়লেট পেপার রোল।
অস্ট্রেলিয়ার একটি সংবাদপত্র আরও এক ধাপ এগিয়ে। তারা খবরের কাগজে আলাদা করে আট পাতা দিয়েছে। কোনও খবর লেখা নেই তাতে। জলছাপ দেওয়া পাতাগুলোর নীচে রয়েছে একটি বিশেষ বার্তা, ‘‘টয়লেট পেপার হিসেবে ব্যবহার করুন।’’ 
সংবাদ সংস্থাটি নিজেরাই টুইটারে পোস্ট করেছে তাদের ওই অভিনব উদ্যোগের ভিডিও। তিন লক্ষ মানুষ ভিডিওটি দেখেছেন। হাজার হাজার লাইক, কমেন্ট। কেউ লিখেছেন, এই জন্যই কাগজটাকে এত পছন্দ করি!
Loading...

No comments

Powered by Blogger.