বিকেল থেকেই লকডাউন, দুশ্চিন্তায় কৃষকরা




সোমবার বিকেল থেকেই লকডাউন রাজ্যজুড়ে. সরকারি ও বেসরকারি সব রকম পরিবহনব্যবস্থা বন্ধ থাকার ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার. করোনা ভাইরাসের আক্রমণ রুখতে রাজ্যের এই পদক্ষেপ  সমর্থন করেছেন আপামর রাজ্যবাসী. কিন্তু তবুও বহু চাষীর মাথায় হাত. উৎপাদিত ফসল  কিভাবে পৌঁছোবে কলকাতার বাজারে ভেবেই কুল পাচ্ছেন না দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ অঞ্চলের চাষীরা. আগামী কয়েক দিন লকডাউন চলাকালীন আর্থিক ক্ষতির সম্ভাবনা করছেন কৃষকরা.

রুখতেই হবে  মারণ করোনা.   এমনই পণ করেছে গোটা দেশ.  কেন্দ্রে সুপারিশ মেনে  সোমবার বিকেল থেকে  রাজ্যে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে. বন্ধ থাকবে সরকারি ও বেসরকারি গণপরিবহন ব্যবস্থা. করোনার সংক্রমণ  রুখতে  বন্ধ রেল পরিষেবা. এই ঘোষণাতেই  বিপাকে পড়েছেন রাজ্যের  একাংশের  ফল ও  সবজি ব্যবসায়ীরা. দক্ষিণ ২৪ পরগনার  একটি বিস্তীর্ণ অঞ্চলের  ফল ও সবজি ব্যবসায়ীরা মূলত ট্রেন ও সড়ক পথেই কলকাতায় তাদের ফল ও সবজি সরবরাহ করেন.


লকডাউন ঘোষণা হয় বন্ধ ট্রেন পরিষেবা.  ফল ও সবজি  কলকাতার বাজারে নিয়ে যেতে মিলছে না গাড়ি..বারুইপুরের পাইকারি বাজারে ৯০%  দাম কমে গিয়েছে ফলের. উৎপাদিত ফল কলকাতার বাজারে কিভাবে নিয়ে যাবেন তা ভেবেই কুল পাচ্ছেন না  ব্যবসায়ীরা.
Loading...

No comments

Powered by Blogger.