বয়স বাড়লে অ্যালকোহলের ক্ষতিকর প্রভাব বাড়ে



অ্যালকোহলের মতো ক্ষতিকর নেশায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এর মাত্রা বাড়ে। এর কারণ হিসেবে সম্প্রতি কিছু তথ্য জানা গেছে গবেষণায়। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে আইএএনএস।
গবেষকরা জানিয়েছেন, অ্যালকোহল পানের প্রভাব বয়সের সঙ্গে সঙ্গে পরিবর্তিত হয়। অল্প বয়সে অ্যালকোহল পানে যে ধরনের প্রভাব পড়ে, বয়স বাড়লে এ প্রভাব বেশি হয়ে থাকে।
এ বিষয়ে মুম্বাইয়ের নানাভাটি সুপার স্পেশিয়ালিটি হসপিটালের জেনারেল ফিজিশিয়ান ডা. রাহুল ট্যাম্বে বলেন, ‘আমাদের লিভারের অ্যালকোহলের সঙ্গে মানিয়ে চলার ক্ষমতা বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমে। বয়স বাড়লে অ্যালকোহল বিপাকের এনজাইমগুলো কমে যায় এবং দেহের ফ্যাট বাড়ে যা মাংসপেশির পরিমাণ কমায়। এতে অ্যালকোহলের প্রভাব বেশি পড়ে।’
তিনি আরো জানান, বয়স্ক ব্যক্তিরা বিভিন্ন ওষুষ গ্রহণেও অভ্যস্ত হন, যা অ্যালকোহলের সঙ্গে বিক্রিয়া করতে পারে। এছাড়া তাদের ওজন কমার কারণেও দেহে অ্যালকোহল ছড়িয়ে পড়া ও সার্বিকভাবে নেশাগ্রস্ত হওয়ায় সহায়ক হয়।
এছাড়া বয়সের সঙ্গে সঙ্গে মস্তিষ্কও পরিবর্তিত হয়। এতে মস্তিষ্কে অ্যালকোহলসহ বিভিন্ন নেশাদ্রব্য সহজেই আঘাত হানতে পারে বলে জানান বিশেষজ্ঞরা।
অতিরিক্ত অ্যালকোহল পানে দেহে পড়তে পারে নানা ক্ষতিকর প্রভাব। এছাড়া স্বাভাবিকভাবে হ্যাংওভার নামে অভিহিত করা হয় কয়েকটি অবস্থাকে। এ অবস্থার মধ্যে রয়েছে সাধারণ মাথাব্যথা থেকে শুরু করে মারাত্মক মাথাব্যথা, বমি, বিভ্রান্তিকর চাপল্য, অবসন্নতা ও অতিরিক্ত ঘাম হওয়া। অনেকের ক্ষেত্রে এটি উদ্বেগ ও ভয়ের কারণও হয়।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.