কেউ নিচ্ছেন না তনুশ্রীকে


 বলিউডে তিনিই প্রথম #মিটু আন্দোলন এনেছেন। অকপট মুখ খুলেছেন বলিউডে যৌন হেনস্থার বিরুদ্ধে। নিজের সঙ্গে এক বয়োজ্যেষ্ঠ অভিনেতার যৌন হয়রানির ঘটনা প্রকাশ্যে এনেছেন। কিন্তু তাতে আদৌ কি লাভ হয়েছে এই অভিনেত্রীর?
ভারতীয় সিনেমায় এখন উপেক্ষিত হয়ে পড়েছেন ‘আশিক বানায়া আপনে’খ্যাত অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। অথচ ২০০৫ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত তনুশ্রীর হাতভর্তি কাজ ছিল। দারুণ জনপ্রিয় অভিনেত্রী হয়ে উঠেছিলেন তিনি। কিন্তু সে দিন এখন অতীত।
অনেক দিন ধরেই তনুশ্রী বলিউডে কাজে ফিরতে চাইছেন। কিন্তু তার সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন না কেউ। কারণ, তার কপালে ইতোমধ্যে ‘ঝামেলাকর’ মানুষ হিসেবে তকমা জুটে গেছে। বর্ষীয়ান অভিনেতা নানা পাটেকরের নামে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনার পর থেকেই তাকে অনেকটা এড়িয়ে চলছেন অন্যরা।
বলিউডের একজন শীর্ষ চিত্রনির্মাতা ডেকান ক্রনিকলকে জানান, তিনি তনুশ্রীকে সিনেমায় নেওয়ার আগে দুইবার নয়, বহুবার ভাববেন। তিনি বলেন, তনুশ্রী দত্ত নানা পাটেকরের ক্যারিয়ার ধ্বংস করে দিয়েছেন। তার সঙ্গে কাজ করার ভাবনা বিপজ্জনক। কলা-কুশলী ও টেকনিশিয়ানরা তার সামনে বিব্রত বোধ করবেন। তারা ভেবে কুল পাবেন না, কীভাবে তার সঙ্গে সঠিক আচরণ করতে হবে।
তনুশ্রী দত্ত ২০১০ সালে ভারত ছেড়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। দুর্ভাগ্যজনকভাবে তিনি খালি হাতেই আবার দেশে ফেরেন। এখন তার হাত শূন্য। আর যাদের বিরুদ্ধে তিনি অভিযোগ এনেছিলেন, তারা এখন বলিউডে দিন-রাত কাজ করে চলেছেন।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.