কোন সময় স্ত্রীর সঙ্গে যৌন মিলন করা উচিত নয়?


স্বামী স্ত্রীর পবিত্র মিলকে স্বর্গ সুখের সাথে তুলনা করা হয়েছে।স্ত্রী সহবাস করে স্বামী যেমন পরম তৃপ্তি লাভ করে তেমনি স্ত্রী ও পরম সুখ লাভ করে।তবে স্ত্রী সহবাস সব সময় করা ঠিক নয়।কারণ কি? হ্যা বেশ কিছু কারণ আছে ঐ সময়গুলোতে স্ত্রী সহবাস হতে পারে মারাক্তক ক্ষতি। কোন কোন সময়ে স্ত্রী সহবাস করা উচিত নয়  জেনে নিন কোন কোন সময় স্ত্রী সহবাস করলে ক্ষতি হতে পারে।চরুন জেনে নিই।

১. মহিলাদের মাসিক বা ঋতুস্রাব অবস্থায় কখনোই স্ত্রী সহবাস করা উচিত না।
২. নিফাস ( অর্থাত্‍ মহিলাদের বাচ্চা প্রসবের পর চল্লিশ দিন বা এর কমে যে কয়দিনে রক্ত আসা
পরিপূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে যায়) অবস্থায় স্ত্রী সহবাস করা উচিত না। এ দুসময়ের মধ্যে সহবাস করলে উভয়েরই অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। কেননা এ সময়ের রক্তের প্রচুর পরিমাণ বিষাক্ত জীবানু থাকে। যার দ্বারা ভয়ানক রোগ হওয়ার সম্ভাবনা প্রমাণিত। অনেক পুরুষকে দেখা যায় যে , এ স্ময় সহবাস করার কারণে লজ্জাস্থানে এলার্জী জাতীয় বিভিন্ন রোগ হয়।

লজ্জাস্থানে জ্বালাপোড়া শ্র" হয়ে যায়, আবার কারো ধাতু দুর্বলতা দেখা দেয়। এ সময়ের সহবাস দ্বারা সন্তান জন্ম নিলে অনেক ক্ষেত্রে সন্তানের শরীরে বিভিন্ন রোগ হয়ে থাকে। শরীরে বিভিন্ন ধরণের ঘা হয়, যা থেকে অনবরত পানি ঝরতেই থাকে এবং বাচ্চাদানী বাহিরে বের হয়ে আসে । আবার অনেক সময় মহিলাদের ভ্রুণ নষ্টের রোগ হয়ে থাকে।এ ছাড়াও এ সময়ের সহবাসে নারী পুরুষ উভয়েই বিভিন্ন ধরণের রোগ ব্যাধিতে আক্রান্ত হ।

কেননা ঋতুস্রাব ও নেফাসের রক্তে শরীরের ভিতরের রোগ জীবাণুযুক্ত অপবিত্র উপকরণ থাকে। সে সাথে বিষাক্ত জীবাণুও থাকে। রক্তস্রাবের সময় মহিলাদের সর্বক্ষণ রক্ত নির্গত হওয়ার কারণে কারো কারো যৌনাঙ্গটি এক প্রকার ফোলা ও উষ্ণ থাকে। ঋতুস্রাব বা নেফাস থেকে পবিত্র হয়ে গোসল করার আগ পর্যন্ত মহিলাদের সাথে সহবাস করবেনা।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.