মেয়ে শ্বশুড় বাড়ি গেলেন হেলিকপ্টার চড়ে


মেয়ের ছোট বেলার আপদার মেটাতে বাবা মাহিন্দ্র সিং মেয়ে রিনাকে হেলিকপ্টারে শ্বশুর বাড়িতে পাঠালেন। ভারতের রাজস্থান রাজ্যের ঝুনঝুনু গ্রামের এই ভদ্রলোক পেশায় কৃষক। বিয়ের কিছুদিন আগে মেয়ের ছোট বেলার বিমানে চড়ার বিষয়টি মাহিন্দ্রর মাথায় ব্যাপারটা ঘুরপাক খাচ্ছিল। তিনি পরিকল্পনা করেন বিয়ের দিনই মেয়ের স্বপ্ন পূরণ করবেন। মেয়েকে হেলিকপ্টারে শ্বশুর বাড়ি পাঠাবেন।
এরপর তিনি গোপনে হেলিকপ্টার ভাড়া করেন। স্থানীয় প্রশাসনের কাছ থেকে উড্ডয়নের অনুমতিও নেন। বিয়ের দিন যখন বাড়ির পাশে খোলা জায়গায় হেলিকপ্টার এসে নামে তখন রিনা বিস্মিত চোখে বাবার দিকে তাকিয়ে দেখেন- তিনি মুখ টিপে হাসছেন! ততক্ষণে মেয়ের চোখে নেমেছে আনন্দঅশ্রু।
যথারীতি বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে নতুন বর-বধূকে নিয়ে হেলিকপ্টার গন্তব্যে রওনা হয়ে যায়। মেয়েকে বিদায় দিয়ে মাহিন্দ্র সিং বেদনায় ভারাক্রান্ত হলেও মনটা তার আনন্দে ভরে ওঠে। ভাবতে থাকেন জীবনের শেষ সঞ্চয় দিয়ে হলেও মেয়ের আশা তিনি পূরণ করতে পেরেছেন। মাহিন্দ্রর আর্থিক অবস্থা ততটা স্বচ্ছল না হলেও বাবা হিসেবে তিনি যা করেছেন এলাকায় সাড়া পড়ে গেছে। প্রশংসার বৃষ্টিতে ভিজছেন তিনি।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.