বিমানে বড় আসন পাওয়ার আশায় অসুস্থতার ভান!


উড়োজাহাজে ভালো আসন পাওয়ার আশায় অসুস্থতার ভান করে গণ্ডগোল পাকিয়েছেন একজন নারী যাত্রী। তার মিথ্যে নাটকের কারণে একটি ফ্লাইট উড্ডয়নের পরও বিমানবন্দরে ফিরে আসতে বাধ্য হয়। তবে পরিণামে তাকে উড়োজাহাজ থেকে নেমে যাওয়ার পাশাপাশি মেনে নিতে হয়েছে পুলিশি হেফাজত।
যুক্তরাষ্ট্রের আঞ্চলিক বিমান সংস্থা আমেরিকান ঈগলের ফ্লাইটটি গত ২৯ নভেম্বর ফ্লোরিডার পেন্সাকোলা থেকে একই অঙ্গরাজ্যের মিয়ামি শহরের দিকে যাচ্ছিল। কিন্তু ওই নারী যাত্রী অসুস্থতার কথা জানালে তার চিকিৎসা সহায়তায় উড্ডয়নের আধা ঘণ্টা পর পেন্সাকোলায় ফিরে আসে বিমানটি।
পেন্সাকোলা পুলিশ বিভাগের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাইক উড জানান, উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পর থেকেই ওই যাত্রী আসন নিয়ে অভিযোগ জানাতে থাকেন। তিনি বড় আকারের আসন দাবি করেন। কিন্তু কেবিন ক্রু সদস্যরা তাকে জানিয়ে দেন, আসন পরিবর্তনের সুযোগ নেই। তখনই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন! এ কারণে পাইলট বিমানটি ঘুরিয়ে পেন্সাকোলা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দিকে ফিরিয়ে আনেন।
কিন্তু অবতরণের পর আমেরিকান ঈগলের কর্মীরা বুঝতে পারেন, ওই যাত্রী অসুস্থতার ভান করেছেন। এরপরই তাকে উড়োজাহাজ থেকে নেমে যেতে বলা হয়। কিন্তু তিনি তাতে অস্বীকৃতি জানালে পুলিশের সহযোগিতা চাওয়া ছাড়া উপায় ছিল না। তাদের ডেকে ওই নারীর সঙ্গে আলোচনা করেন ফ্লাইটের ক্যাপ্টেন। শেষমেষ তিনি নামতে রাজি হন।
পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার পর বেকার আইন অনুযায়ী ওই নারীকে মানসিক স্বাস্থ্য সুবিধা দিতে সংশ্লিষ্ট জায়গায় পাঠানো হয়। মাইক উডের তথ্যানুযায়ী, তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগ দায়ের করা হতে পারে।
ফ্লোরিডার বেকার আইন অনুযায়ী, মানসিক অসুস্থতার কারণে অঘটনের জন্ম দেওয়া ব্যক্তিদের আটক করা যায়।
শুক্রবার একঘণ্টারও বেশি সময় পর পেন্সাকোলার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমানটি আবারও উড্ডয়ন করে।
আমেরিকান ঈগল হলো আমেরিকান এয়ারলাইনসের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.