আট গোলের শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে জয় পেলো না পিএসজি



আট গোলের শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে জয় পেলো না পিএসজি


ইনজুরির কারণে দলে নেই নেইমার জুনিয়র, চ্যাম্পিয়নস লিগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের কথা ভেবে বিশ্রাম দেয়া হলো আরেক তারকা কাইলিয়ান এমবাপেকে। এ দুই তারকাকে বাইরে রেখেই রেলিগেশন জোনে ঘুরতে থাকা এমিয়েনসের বিপক্ষে খেলতে নেমেছিল প্যারিস সেইন্ট জার্মেই। যার মাশুলও প্রায় গুনতে বসেছিল টমাস টুখেলের দল। নিজেদের ঘরের মাঠে পিএসজিকে চেপে ধরেছিল এমিয়েনস। প্রথমার্ধেই তারা এগিয়ে গিয়েছিল তিন গোলে। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে আবার লিড নিয়েছিল পিএসজি। কিন্তু শেষ মুহূর্তে আবার গোল করে টেবিল টপারদের হতাশায় ডুবিয়েছে এমিয়েনস।

সবমিলিয়ে লিগে নিজেদের ২৫তম রাউন্ডের ম্যাচটি খেলতে নেমে ৮ গোলের শ্বাসরুদ্ধকর লড়াই উপহার দিয়েছে পিএসজি ও এমিয়েনস। ম্যাচ শেষে স্কোরলাইন ৪-৪, জেতেনি কেউ, হারেনিও কেউ। তবে এ ড্রয়ের কারণে শীর্ষস্থান নিয়ে কোনো সমস্যা হয়নি পিএসজির। লিগের ২৫ ম্যাচ শেষে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের পয়েন্ট ৬২, জিতেছে ২০টি আর ড্র হয়েছে ২ ম্যাচ। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা মার্সেইলের চেয়ে ১৩ পয়েন্টে এগিয়ে তারা। অন্যদিকে সমান ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে অবনমনের কাছে এমিয়েনস।

শনিবার রাতে প্রতিপক্ষের মাঠে খেলতে গিয়ে ৪০ মিনিটের মধ্যেই তিন গোল হজম করে পিএসজি। এমিয়েনসের পক্ষ গোল তিনটি করেন সেরহু গুরাসি, গায়েল কাকুতা এবং ফওসেনি দিয়াবেট। প্রথমার্ধে পিএসজির পক্ষে এক গোল শোধ করেন অ্যান্ডার হেরেইরা। দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে টানা তিন গোল করে পিএসজি। তাদের পক্ষে স্কোর শিটে নাম তোলেন টাঙ্গু কুয়াসি এবং মাউরো ইকার্দি। এর মধ্যে ৬০ ও ৬৫ মিনিটে দুইবার জালের দেখা পান কুয়াসি। আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার ইকার্দি গোল করেন ৭৪ মিনিটে। তার গোলের সুবাদে ৪-৩ ব্যবধানে জয়ের সুবাস পাচ্ছিল পিএসজি। কিন্তু ম্যাচের নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে প্যারিসের ক্লাবটিকে হতাশ করেন ম্যাচের প্রথম গোল করা সেরহু গুরাসি। ড্র নিয়েই বাড়ি ফিরতে হয় পিএসজিকে।


Loading...

No comments

Powered by Blogger.