আসানসোল পুরনিগমের উদ্যোগে নজরুল ইসলামের প্রোজেক্টের শিলান্যাস

 
জয়ন্ত সাহা, আসানসোল :  আসানসোল পুরনিগমের উদ্যোগে জামুড়িয়ার চাঁদায় তৈরি করা হচ্ছে কাজি নজরুল ইসলাম প্রোজেক্ট। সোমবার সকালে এক অনুষ্ঠানে এই প্রোজেক্টের শিলান্যাস করেন আসানসোল পুরনিগমের মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়ারি। এই অনুষ্ঠানে মেয়র বলেন, পুর এলাকার বাসিন্দাদের রাস্তা, বিদ্যুৎ ও পানীয়জলের সুবিধা দেওয়া আমাদের দায়িত্ব। কিন্তু তারপরও আরো কিছু কাজ করতে হয়। সেইসব কাজ করতে একটা আলাদা আনন্দ পাওয়া যায়। কিছু কাজ মানুষ সব মনে রাখে। এখানে এই যে কাজ করা হচ্ছে, তারও একটা আলাদা গুরুত্ব আছে। এখানে ৫০ লক্ষ টাকা খরচ করে বিদ্রোহী কবি কাজি নজরুল ইসলামের স্মৃতিতে মঞ্চ, ভবন সহ অন্যান্য জিনিস তৈরী করা হবে। এখানে একটা চিলড্রেন পার্ক তৈরীর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এই রাস্তা দিয়েই কবির জন্মভিটে যাওয়া হয়। এখানকার মানুষেরা তার মাহাত্ব বুঝতে পারেন না। কিন্তু অন্য রাজ্যের লোকে ও বুদ্ধিজীবিরা আসানসোলে আসেন। তাদের একটা ইচ্ছে থাকে কবির জন্মভিটে যাওয়ার। তাদের কথা ভেবেই এখানে এই কাজ করা হচ্ছে। এখানকার কমিটির প্রতি কৃতজ্ঞ যে, তারা  সব সময় চেষ্টা করছেন কিছু করার। তাদের সেই চেষ্টাতেই আসানসোল পুরনিগম এই কাজ করছে। তিনি আরো বলেন, ২ নং জাতীয় সড়কে এখানে একটা কবির মূর্তি ছিলো। কিন্তু, তা যেভাবে সরানো হয়েছিলো, তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে সমালোচনা করা হয়। অনেক লোক সেই সময় অনেক বড় বড় কথা বলে গেছিলেন। তাদের মধ্যে সাংসদ ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও ছিলেন। রাজনীতির জন্য রাজনৈতিক কথা বলা ছাড়া তারা কেউ কিছু করেননি। তারা কাজি নজরুল ইসলামকে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য কিছুই করেননি। কমিটির লোকেরা এই রাজনৈতিক কথায় যেন না পড়েন। ভালো কাজকে রাজনীতির জন্য ব্যবহার করলে, তার পবিত্রতা নষ্ট হয়ে যায়। আপনাদের এই কাজে যেন রাজনীতির আঁচ না লাগে। মেয়র বলেন, রাজনীতি করার জন্য অন্য জায়গা ও সময় আছে। কিছু জিনিস এমন হওয়া উচিত যেখানে রাজনীতির রং যেন না লাগে। নজরুলকে নিয়ে যারা রাজনীতি করার চেষ্টা করছে, তাদের উপর নজর রাখা এই কমিটির দায়িত্ব। কমিটির আয়োজনে পুরনিগম  থেকে পাওয়া আর্থিক সহায়তায় কখনও কোন সময় প্রতিবন্ধকতা করা হয়নি। পুরনিগম এমন কোন কাজ করবে না, যাতে নজরুলকে নিয়ে আমাদের যে গর্ব তাতে আঘাত লাগুক। আমরা সেই কাজ অন্য কাউকেও করতে দেবোনা। যাতে না আমাদের বাংলার স্বপ্ন কলঙ্কিত হোক।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.