করোনাভাইরাস আতঙ্কে অলিম্পিক আয়োজক দেশ




করোনাভাইরাস আতঙ্কে অলিম্পিক আয়োজক দেশ


বর্তমান বছর জাপানের টোকিওতে বসবে 'দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ' অলিম্পিকের আসর। ২৪ জুলাই থেকে টুর্নামেন্ট শুরু হবে। চলবে ৯ আগস্ট পর্যন্ত। এর আগে করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত আয়োজক দেশটি।
বর্তমানে করোনা আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। ব্যতিক্রম নয় জাপানও। চীন থেকে উদ্ভূত ভাইরাসের সংক্রমণ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। খেলার জগতেও তা থাবা বসাচ্ছে।

৫ মাস পরই টোকিও অলিম্পিক। ব্যাডমিন্টন থেকে ভারোত্তোলন, জিমনেসটিকসসহ অলিম্পিকে একাধিক ইভেন্টে আধিপত্য দেখান চীনা খেলোয়াড়রা। এবারও সেরা পারফরম্যান্স প্রদর্শনের প্রত্যাশা করছেন তারা।
ইতিমধ্যে চীনে করোনাভাইরাসে মৃত্যের সংখ্যা ৫০০ ছাপিয়ে গেছে। এই প্রাদুর্ভাব নিয়ে গোটা বিশ্ব চিন্তিত। একাধিক দেশে সতর্কতা জারি হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন বিমানবন্দরেও সতর্কতা জারি রয়েছে।

চীনে এখন পর্যন্ত ২৫ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। স্বভাবতই এর ভয়াবহতা নিয়ে বেশ শঙ্কিত অলিম্পিক আয়োজক কমিটি। কমিটির প্রধান তোসিরো মুতো করোনা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, করোনাভাইরাস এখন মহামারী আকার নিয়েছে। আশা করি, দ্রুত এ ভাইরাস নিরাময় করা যাবে। খোলোয়াড়দের স্বাস্থ্য আমাদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। খেলোয়াড়রা যাতে টুর্নামেন্টে নিজেদের সেরাটা দিতে পারে, সেটি নিশ্চিত করাই আমাদের প্রথম কাজ।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে করোনাভাইরাস আতঙ্কে চীনা মাস্টার্স ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট স্থগিত হয়েছে। ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে সেটি শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে তা এখন মাঠে গড়াচ্ছে না। স্থগিত করা হয়েছে চাইনিজ ফুটবল লিগও। যেখানে খেলে থাকে বিশ্বের তারকা ফুটবলাররা।

Loading...

No comments

Powered by Blogger.