বাবলু নেই, তাঁর স্মৃতি আঁকড়ে দিন কাটাচ্ছে পরিবারের




কেটে গেছে একটা বছর। গত বছর আজকের দিনেই পুলওয়ামা হামলায় শহিদ হয়েছিলেন উলুবেড়িয়ার বাউড়িয়ার বাসিন্দা বাবলু সাঁতরা। বাবলু নেই, তবু তাঁর স্মৃতি আঁকড়ে পড়ে আছে তাঁর পরিবার। যেখানে দু চোখ যায়, সেখানেই বাবলুর ছোঁয়া। মা বনমালা দেবীর চোখ জলে ভরে ওঠে ছেলের কথায়। তিনি শুধু চান আর কোনও মায়ের যেন কোল খালি না হয় এভাবে। ১৪ ফেব্রুয়ারি বাবলুর মৃত্যু হলেও তিথি অনুযায়ী তাঁর মৃত্যুবার্ষিকী গত ৩ ফেব্রুয়ারি হয়েছে। সেই উপলক্ষে ওইদিনই বাড়ির লোকেরা তার বাৎসরিক পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। বাবলুর পরিবার শুধু চায় শান্তি যেন থাকে। রাজ্য সরকার , সিআরপিএফ তাঁদের পাশে আছে। কিন্তু বাবলুর মৃত্যুর জন্য যারা দায়ী, তারা কি কোনওদিন শাল্তি পাবে। সেই উত্তরের আশায় যেন বসে আছে বাবলুপ পরিবার।
গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ জম্মু থেকে কাশ্মীর যাওয়ার পথে পুলওয়ামার অবন্তিপুরাতে জঙ্গি হামলায় ৪৯ জন জওয়ান শহিদ হন। বাবলু তাদের মধ্যে অন্যতম। তিনি সিআরপিএফের ৩৫ নম্বর ব্যাটালিয়নের জওয়ান ছিলেন। ২০০০ সালে বাবলু সিআরপিএফে যোগ দেন। গতবছর আজকের দিনেই শ্রীনগর-অনন্তনাগ হাইওয়ে ধরে জম্মু থেকে শ্রীনগর যাচ্ছিল ২৫০০ জওয়ানের একটি কনভয়। আটাত্তরটি গাড়ির ওই বিশাল কনভয়ই ছিল জঙ্গিদের টার্গেট। পুলওয়ামার অবন্তীপুরার কাছে কনভয় পৌঁছতেই, উলটো দিক থেকে একটি এসইউভি গাড়ি কনভয়ের কাছাকাছি চলে আসে। তারপরেই ঘটে ভয়াবহ বিস্ফোরণ। পাশেই ছিল চুয়ান্ন নম্বর ব্যাটেলিয়নের বাস। বিস্ফোরণে উড়ে যায় জওয়ানদের বাসটি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় বহু জওয়ানের।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.