জন্মের পর থেকে খেয়েই যাচ্ছে গিজার


জন্মের কিছুদিন পর থেকে খেতেই ব্যস্ত ব্রিটিশ পরিবারের সন্তান গিজার বাক্সটন। তার বয়স এখন ছয় মাস। সে দিনের বেশির ভাগ সময়ই খাওয়ার কাজে ব্যস্ত থাকে।
মঙ্গলবার যুক্তরাজ্য ভিত্তিক গণমাধ্যম ডেইলি মেইলে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।
চিকিৎসকদের মতে, গিজার ‘প্রাডের উইলি সিনড্রম (পিডব্লিউএস)’ রোগে আক্রান্ত। এ রোগীরা সবসময় খেতে চায়। তাদের ঘন ঘন ক্ষুধা লাগে। এজন্য বাবা-মাকে সবসময় সচেতন থাকতে হয়। তবে এ রোগ থেকে সাধারণত কেউ মুক্তি পায় না।
এ ধরনের রোগীরা সামনে যে খাদ্য পায় তাই খেয়ে ফেলে। মাঝে মধ্যে তারা অখাদ্যও খেয়ে ফেলতে পারে। এ ধরনের শিশুরা অন্য শিশুদের তুলনায় ৬-৭ গুণ বেশি খেয়ে থাকে। 
গিজারের বাবা মিচেল সার্জিন্ট ও মা ক্রেইগ বাক্সটন তাদের সন্তানকে নিয়ে খুব চিন্তিত। তারা বলছেন, গিজার ভবিষ্যতে নিজের জীবন নিজে পরিচালনা করতে পারবে না।
গিজারের বাবা মিচেল সার্জিন্ট বলেন, ‘গিজার জন্মের পর অনেক সময় ঠিকমতো নিঃশ্বাস নিচ্ছিল না। এজন্য আমরা ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। চিকিৎসকরা বলেছিল, তার বাঁচার সম্ভাবনা অনেকটাই কম।’
তবে এ ধরনের রোগীদের ভবিষ্যতে বহুমূত্র, হৃদরোগ ও মেদ বেড়ে যাওয়াসহ আরো অনেক রোগ হতে পারে। বর্তমানে যুক্তরাজ্যে প্রতি ১৫ হাজার শিশুর মধ্যে একজন শিশু এ রোগে আক্রান্ত। 
জন্মগতভাবে এ রোগ হয়ে থাকে। তবে বাবা-মা বা বংশের অন্য কারো এ রোগ থাকলেই শুধু এ রোগ হবে তা নয়। যে কারো এ রোগ হতে পারে।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.