চুম্বক মানব


 মিরোস্লা ম্যাগোলা। জার্মান দেশে তার বাড়ি। গায়েগতরে আর দশজন মানুষের মত তিনিও মানুষ। কিন্তু তার কাজ দেখলে মনে হয় না তিনি মানুষ।
কোনো আঠা বা ছলচাতুরীর আশ্রয় নেয়া ছাড়াই তিনি চুম্বকের মত তার দেহের সাথে আটকে রাখতে পারেন পানীয়ের ক্যান, পাত্র , কড়াই, চামচ-সবকিছুই। তার কপালে, হাতে কিংবা বুকে চুম্বকের মত আটকে যায় সব।
 
জার্মান এই ভদ্রলোক দাবি করেন, মানসিক শক্তি নিয়ে গবেষণা করার পরই তিনি তিনি পদার্থের ওপর নিয়ন্ত্রণ লাভ করেন। আর এভাবেই বিভিন্ন জিনিসকে নিজের দেহের সাথে চুম্বকের মত আটকে রাখার ক্ষমতা অর্জন করেন। 
 
৫৫ বছর বয়সী ম্যাগোলা বলেন,  “নব্বইয়ের দশকে যখন আমি  ডিগ্রি অর্জনের জন্য পড়াশোনা করছিলাম, তখন আমার মনে হল, এরকম একটা কাজের জন্য আমি নিজেকে তৈরি করতে পারি কিনা। এরপর থেকে আমি নিজেকে এই দক্ষতা অর্জনের প্রচেষ্টায় নিয়োজিত করি।’ 
 
তিনি আরো বলেন,  “আমি পৃথিবীর অভিকর্ষ শক্তিকে নিজের ইচ্ছেমত ব্যবহার করতে পারি, সেই শক্তিকে নিজের মাঝে জমাও করতে পারি। আর সেটি ব্যবহার করে বিভিন্ন জিনিসকে ইচ্ছেমত হাতের সংস্পর্শ ছাড়াই নাড়াতে পারি।“ 
 
যারা ম্যাগোলাকে দেখেছেন তাদের অনেকে সেটি বিশ্বাস করেছেন, অনেকে দ্বিধা-দ্বন্দ্বের মাঝে আছে। আর অনেকে তাকে একদমই “ভুয়া” মনে করছেন।
 
কিন্তু কিছু বিজ্ঞানীও অবশ্য মনে করেন কোন কোন মানুষের দেহে চুম্বকত্ব থাকতে পারে।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.