OMG: মাকে খুন করে পুলিশকে কল করলেন ‘টারজানের ছেলে


নিজ ছেলের হাতে খুন হয়েছেন 'টারজান'খ্যাত জনপ্রিয় অভিনেতা রন এলির স্ত্রী ভ্যালেরি। তাদের ৩০ বছর বয়সী ছেলে ক্যামেরুন এলিই তার মাকে হত্যা করেছে। পরে পুলিশের গুলিতে ক্যামেরুনেরও মৃত্যু হয়। মঙ্গলবার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় এ ঘটনা ঘটে।
ক্যামেরুন ছাত্র হিসেবে খুবই মেধাবী ছিলেন। হার্ভাড থেকে স্নাতক করেছেন। শিক্ষকরাও তার প্রশংসা করতেন। নানা সাক্ষাৎকারে ক্যামেরুনের প্রশংসা করেছেন রন এলিও। কিন্তু সেই ছেলে কেন মাকে খুন করল তার জবাব পাওয়া যায়নি।
মাকে খুনের পর ক্যামেরুনই জরুরি ভিত্তিতে ৯১১ নম্বরে কল করে পুলিশ ডাকেন। বাবার ওপর খুনের দায় চাপানোর ব্যর্থ চেষ্টা করেন তিনি। পুলিশকে ক্যামেরুন জানান, তার বাবা রন এলি স্ত্রী ভ্যালেরির ওপর হামলা চালিয়েছেন।
কিন্তু ঘটনা ছিল ভিন্ন। টারজান নিজেই খুন করে মাকে। টারজান ঠিকমতো কথাই বলতে পারেন না। নড়াচড়াও করতে পারেন না।
তিনি জানান, তার ছেলের কারণেই তিনি হারিয়েছেন প্রিয়তমা স্ত্রীকে।
৯০ মিনিট পর বাড়িটির বাইরে ক্যামেরনকে খুঁজে পায় পুলিশ। পরে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়।
গত শতকের ষাটের দশকে সবচেয়ে জনপ্রিয় টিভি সিরিজগুলোর একটি ‘টারজান’। ১৯৬৬ থেকে ১৯৬৮ সাল পর্যন্ত এনবিসি নেটওয়ার্কে প্রচারিত হয়। ১৯৮০ সালে অভিনয়শিল্পী ও লেখক রন এলি ‘মিস আমেরিকা’ অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন। ১৯৮১ সালে তিনি ‘মিস ফ্লোরিডা’ ভ্যালেরি এলিকে বিয়ে করেন। এই দম্পতির তিন সন্তান।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.