আই এন এস বিক্রমাদিত্য সম্বন্ধে কিছু অজানা তথ্য




আই এন এস বিক্রমাদিত্য এটি হল কিয়েভ শ্রেণির এয়ারক্র্যাফট ক্যারিয়ার। এটি ২০১৩ সালে ভারতীয় নৌ সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়। একে ভারতের পৌরাণিক সম্রাট বিক্রমাদিত্য নামে অভিহিত করা হয়।কয়েক বছর ধরে আলোচনার পর ২০০২ সালের ২০ জানুয়ারি , ভারত ও রাশিয়া জাহাজটি ক্রয়বিক্রয়ের জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে। জাহাজটি ভারত পাবে, যখন ভারত জাহাজটি উন্নত করা এবং মেরামত করে পুনঃসক্রিয়করণের জন্য ৮০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেবে, সেইসাথে বিমান ও অস্ত্রশস্ত্রের জন্য অতিরিক্ত ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার দেবে। নৌবাহিনী ই-২সি হকি দিয়ে ক্যারিয়ার সজ্জিত করার কথা চিন্তা করেছিল, কিন্তু পরে না করার সিদ্ধান্ত নেয়। জাহাজের ২৫০০ টি কম্পার্টমেন্টের মধ্যে ১৭৫০ টি পুনর্ব্যবহৃত হয়েছিল, এবং নতুন রাডার এবং সেন্সরকে ব্যবহার করার জন্য ব্যাপকভাবে আবার কেব্লিং করা হয়েছিল। এলিভেটরগুলি আপগ্রেড করা হয়েছিল, এবং দুটি নিয়ন্ত্রণকারী স্ট্যাণ্ড লাগানো হয়েছিল, যাতে একটি স্কি জাম্প সহায়ক জলদি উড়ানের পূর্বে যুদ্ধবিমানটি পূর্ণ শক্তি অর্জন করতে সক্ষম হয়। তিনটি বাধাপ্রদানকারী গিয়ারস অ্যংগলড ডেকের পিছনের অংশে লাগানো হয়েছিল এবং ফিক্সড উইং "শর্ট টেক অফ বাট আরেস্টেড রিকভারি" (STOBAR) অপারেশনকে সমর্থন করার জন্য দিক নির্দেশক এবং ক্যারিয়ার-ল্যান্ডিং এডগুলি যুক্ত করা হয়েছিল।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.