কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের থেকে নজর ঘোরাবার জন্য সিএএ: মলয় ঘটক


কেন্দ্রে বিজেপি সরকার আসার আগে কালো টাকা ফেরৎ আনা,চাকরি সহ বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দিয়ছিল কিন্তু সরকার গঠনের পর জনগন দেখল কালো টাকা আনা তো দূরের কথা রিজার্ভ ব্যাংক,এল আই সি থেকে নিয়ম বর্হিভূত ভাবে টাকা নিয়েছে, বিভিন্ন কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে বেকারের সংখ্যা বেড়ে চলেছে সাধারণ মানুষ যাতে কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করতে না পারে তাদের নজর ঘোরাবার জন্য হঠাৎ এন আর সি এবং সিএএ আইন নিয়ে আসলো " শণিবার সারা রাজ্যের সাথে আসানসোলে বড় পোষ্ট অফিসের পাশে তৃণমূল কংগ্রেসের বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত হয়ে রাজ্যের আইন এবং শ্রম মন্ত্রী মলয় ঘটক কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেন এবং এন আর সি ও সিএএর তীব্র বিরোধীতা করেন। তিনি আরো জানান বার্ণস্ট্যান্ডার্ড, হিন্দুস্তান কেবল কারখানাকে বন্ধ করে দেওয়া হলো, রেলের ১৫০ টা ট্রেন ও৫০টা স্টেশনকে বিক্রি করে দেওয়া হলো, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষের মূল্যবৃদ্ধি, পেয়াঁজের মূল্যবৃদ্ধি সহ বিভিন্ন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জনগন করতে না পারে সেইজন্য এনআরসি এবং সিএএ আইন নিয়ে আসলো।তৃণমূল সরকার যতদিন না আইন প্রত্যাহার করা হচ্ছে ততদিন বিক্ষোভ আন্দোলন চালিয়ে যাবে। শণিবার আসানসোলের বিক্ষোভ সমাবেশে অভিজিৎ ঘটক, অমর নাথ চ্যাটার্জী,গুরুদাস চ্যাটার্জী,নুর রফত পারভিন, উৎপল সিনহা সহ বিভিন্ন তৃণমূল নেতৃত্ব উপস্থিত ছিলেন।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.