জোরা পুরস্কার পেলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো



 জোরা পুরস্কার পেলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো

সোমবার রাতে প্যারিসের ব্যালন ডি’অর মঞ্চে লিওনেল মেসি বাজিমাত করেছেন। সেই সময়, ৮৫০ কিলোমিটার দূরে মিলানের এক আলো ঝলমলে মঞ্চে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোও তখন সেরি-এ লিগের বর্ষসেরার পুরস্কার নিচ্ছেন ।
রোনাল্ডো প্যারিসে যাননি ঠিকই, কিন্তু ছিলেন মিলানে। আর সেখান থেকে তিনি একটি নয়, জোড়া ট্রফি পেয়েছেন। সেরি-আ-র বর্ষসেরা ফুটবলারের পাশাপাশি সেরা স্ট্রাইকারও হয়েছেন তিনি। এই প্রথমবার মহিলাদেরও পুরস্কৃত করল সেরি আ। রোমার ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড ম্য়ানুয়েলা জিউগ্লিয়ানো সেরার সেরার পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছেন।

নিন্দুকরা বলছেন, সান্ত্বনা পুরস্কার জিতেই এত খুশি রোনাল্ডো! মেসি ষষ্ঠ ব্যালন ডি’অর জয়ের রাতে রোনাল্ডোর প্রাপ্তিটা একরকম সান্ত্বনা পুরস্কারই। সেরি-এ লিগের বর্ষসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড রোনাল্ডো ।

ব্যালন ডি’অর লড়াইয়ে মেসি ও ভার্জিল ফন ডাইকের পেছনে থেকে তৃতীয় হওয়ার দুঃসংবাদ আগেই জেনে যাওয়ায় প্যারিসমুখী হননি রোনাল্ডো। তিনি হাজির ছিলেন মিলানের অনুষ্ঠানে। সেখানেও নাটক। অনুষ্ঠানের প্রথমপবে' তাকে দেখা যায়নি। কিন্তু বিজয়ীর নাম ঘোষণা হতেই ভোজবাজির মতো মঞ্চে হাজির হন রোনাল্ডো! পুরস্কার হাতে পেয়ে জানালেন, ‘সেরি-এ লিগের সেরা খেলোয়াড় হতে পেরে আমি গর্বিত। ইতালিতে খেলে আমি খুবই খুশি। এটা বিশ্বের সবচেয়ে কঠিন লিগ। আগামীবারও এখানে আসতে চাই আমি।’


চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মেসি তাকে ছাড়িয়ে রেকর্ড ষষ্ঠবার বিশ্বসেরা হয়েছেন, সেখানে ইতালির সেরা হয়ে মনভরার কথা নয় পর্তুগিজ যুবরাজের। রোনাল্ডোর মনের অবস্থা বুঝতে পেরেই হয়তো তার এজেন্ট জর্জ মেন্দেজ বলেন, ‘সবাই জানে, ক্রিশ্চিয়ানোই সর্বকালের সেরা।’ ব্যালন ডি’অরের লড়াইয়ে দ্বিতীয় হওয়া ফন ডাইক কিন্তু তা মনে করেন না। প্যারিসে রোনাল্ডোর অনুপস্থিতি তার জয়ের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দিয়েছে কি না, অনুষ্ঠানের শুরুতে এমন এক প্রশ্নের জবাবে পর্তুগিজ তারকাকে মোক্ষম এক খোঁচা দেন ফন ডাইক, ‘ক্রিশ্চিয়ানো কী এবার প্রতিদ্বন্দ্বী?’

Loading...

No comments

Powered by Blogger.