জেনে নিই পাউরুটির কচুরি চাট


চাট বা ফুচকার নাম শুনলেই নিজের অজান্তে জিভে জল চলে আসে সবার। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় অথবা যেকোনো রেস্টুরেন্টের সামনে সব সময়ই পাওয়া যায় এই লোভনীয় খাবারটি। ছেলে হোক বা মেয়ে, বর্তমান সময়ে এই খাবারটির ভক্ত সবাই। তবে মজার এই খাবারটি রাস্তার ধারে দাড়িয়ে খাওয়ার সময় থাকে ধুলাবালির উৎপাত। যা পেটের নানা রোগ সৃষ্টি করতে পারে।অথচ ঘরে বসেই আপনি তৈরি করতে পারেন মজাদার চাট। তবে একটু ভিন্নতা আনতে পারেন। গড়পড়তা চাট না খেয়ে এবার টক, ঝাল, মিষ্টি কচুরি চাট খেয়ে দেখুন। তাও আবার পাউরুটি দিয়ে।
আসুন জেনে নিই পাউরুটি দিয়ে মজাদার টক, মিষ্টি, ঝাল কচুরি চাট বানানোর রেসিপি
পাউরুটি দিয়ে কচুরি চাট তৈরি করতে যা যা লাগবেঃ
– পাউরুটি ৬টি
– সিদ্ধ আলু কুচি ১/২ কাপ
– শসা কুচি ১/২ কাপ
– টমেটো কুচি ১/৪ কাপ
– সুইট কর্ণ বা ভুট্টার দানা ১/২ কাপ
– ধনেপাতার চাটনি ৩ টেবিল চামচ
– টক ও মিষ্টি চাটনি ৩ টেবিল চামচ
– টকদই (চিনি ও লবণ মিশানো) ১/৪ কাপ
– চাট মশলা ২ টেবিল চামচ
– চিনি ১ টেবিলচামচ
– গোলমরিচ ১ টেবিলচামচ
– ধনে পাতা কুচি ১ টেবিলচামচ
– চানাচুর ১ টেবলচামচ
– তেল ১ টেবিলচামচ
– নুন ১ টেবিলচামচ
যেভাবে বানাবেন:
প্রথমে পাউরুটির টুকরাগুলো রুটির মত বেলে সব পাশ সমান করে ফেলুন।এরপর একটি গোল বাটি রুটির মাঝখানে রেখে একটি ধারালো ছুরি দিয়ে বাটিকে কেন্দ্র করে গোল করে রুটি কেটে ফেলুন।এরপর মাফিন ট্রে/ কাপ কেক বানানোর বাটিতে তেল মাখুন।এরপর পাউরুটির টুকরোটা কাপের ভিতর এমনভাবে বসিয়ে দিন যেন সেটি কাপ শেইপের মত দেখতে হয়।এরপর পাউরুটির টুকরাগুলোর মধ্যে অল্প একটু তেল ব্রাশ করুন। ওভেন আগে ৩৫০ ডিগ্রি ফারেনহাইট অথবা ১৮০ ডিগ্রী সেন্ট্রিগ্রেডে গরম করে নিন।এরপর ট্রে-টি ওভেনে ব্রেক করার জন্য দিন। ১৫ থেকে ১৮ মিনিট পর্যন্ত পাউরুটি ব্রেক করতে দিন। ব্রাউন রং হয়ে আসলে এটি ওভেন থেকে নামিয়ে ফেলুন।এরপর একটি বাটিতে শসা, সিদ্ধ আলু কুচি, সুইট কর্ণ (যেটি মাক্রোওভেনে ৪৫ সেকেন্ড গরম করে নিতে পারেন), টমেটো কুচি, পেঁয়াজ কুচি, চাট মশলা, গোল মরিচ, ধনে পাতার চাটনি, টক,মিষ্টি চাটনি মিশিয়ে নিন। এবার ব্রেকড পাউরুটি এর ভিতরে প্রথমে মাখানো সবজিগুলো দিয়ে দিন।তারপর একে একে টক দই, ধনে পাতা চাটনি, টক মিষ্টি চাটনি, চানাচুর, ধনে পাতা কুচি, চাট মশলা দিয়ে দিন। ব্যাস তৈরি হয়ে গেল মজাদার টক ঝাল মিষ্টি ব্রেড কচুরি চাট।

Loading...

No comments

Powered by Blogger.