বোমা ফেটে দুটি গবাদি পশু সহ আহত হলেন এক মহিলাঃচাঞ্চল্য


জয়ন্ত সাহা, আসানসোল :খড় ভর্তি ঝুড়ির মধ্যে লুকিয়ে রাখা বোমা ফেটে দুটি গবাদি পশু সহ আহত হলেন এক মহিলা । ঘটনাটি ঘিরে এলাকায় ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য ।  কে বা কারা এই বোমা মজুত করেছিল তার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ ।    মঙ্গলবার সকাল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে বনবহাল ফাঁড়ির ডায়মন্ড মাঝিপাড়ায় । আহত মহিলার নাম ফুলমণি রায় (৪০) । স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে গরুর খাবারের জন্য ঝুড়িতে রাখা খড় কাটছিলেন ফুলমণি দেবী । সেই সময় আচমকাই ঝুড়ির ভেতর বোমাটি ফাটে । বোমার আঘাতে মারাত্মক জখম হন ফুলমনি দেবী । দুটি গবাদি পশুও আহত হয় এই ঘটনায় । বর্তমানে ফুলমণি দেবী রানিগঞ্জের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিত্সাধীন । তাঁর শরীরের নিচের অংশ বোমার আঘাতে মারাত্মক জখম হয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর । ফুলমনি দেবীর মেয়ে সীতা মনি রায় জানান পাশের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে ঘর রাখা থাকে , সকালে মা সেখান থেকে ঝুড়িতে করে খড় নিয়ে এসেছিল । ঘোর কাটার সময় আচমকাই তীব্র আওয়াজ হয় ঝুড়ির মধ্যে । দেখি রক্তাক্ত অবস্থায় মা পড়ে রয়েছে উঠোনের মধ্যে । সামনে দাঁড়িয়ে থাকা দুটি গবাদি পশু ও বোমার আঘাতে মারাত্মক জখম হয় । তবে বোমাটি ঝুড়ির মধ্যে কী ভাবে এল তা বলতে পারেনি সীতা মণি । ঘটনায় অন্যদের মতো তিনি ও অবাক বলে জানান । তবে এই বোমা ফাটার ঘটনায় পেছনে এলাকায় অবৈধ কয়লার ডিপো কারবারিদের যোগ থাকতে পারে বলে এলাকার বাসিন্দাদের একাংশের ধারণা । নাম প্রকাশ করা যাবে না এই শর্তে এক বাসিন্দা বলেন মাসখানেক আগে এখানে তৃণমূলের একটি গোষ্ঠীর মদতে দুষ্কৃতীরা কয়লার ডিপো চালু করেছিল । ডিপোর বখরা নিয়ে অপর গোষ্ঠীর লোকেদের সাথে দুষ্কৃতীদের প্রায়ই ঝামেলা হত । ঝামেলার কারণে কয়েক দিন আগে ডিপোটি বন্ধ হয়ে যায় । ঝামেলার কারনে দুষ্কৃতীরাই ওই পরিত্যক্ত বাড়িটি তে  বোমা মজুত রেখেছিল বলে তাঁদের ধারণা । পাণ্ডবেশ্বরের শাসক দলের ব্লক সভাপতি নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী বলেন এই ঘটনার পিছনে বিজেপির হাত থাকতে পারে । গোটা বাংলায় তাঁরা অরাজকতা তৈরির চেষ্টা করছে । ঘটনার তদন্তে সঠিক কারণ উঠে আসবে বলে জানান তিনি । কে বা কারা সেখানে বোমা লুকিয়ে রেখেছিল তার তদন্ত শুরু করেছে বন বা হল ফাঁড়ির পুলিশ । আহত মহিলার বাড়িতে একজন কনস্টেবল ও একজন সিভিক ভলান্টিয়ার্স মোতায়েন রয়েছে বর্তমানে ।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.