সুপারস্টার বলেছিলেন আলাদাভাবে দেখা করতেঃ ইশা কোপিকার


হলিউডে শুরুটা হয়েছিলো। এরপর ঝড়ের বেগে এটি আঘাত হানে বলিউডে। একের পর এক বিখ্যাত সব মানুষদের মুখোশ উন্মোচন করে দিয়েছে মিটু আন্দোলন। অমিতাভ বচ্চনের মতো তারকার দিকেও যৌন হেনস্তার অভিযোগের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হয়েছে।
কয়েকদিন আগে বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক আনু মালিকের বিরুদ্ধে মুখ খোলেন শ্বেতা পণ্ডিত ও নেহা ভাসিন নামের দুই গায়িকা।
এবার কাস্টিং কাউচ নিয়ে অভিযোগ তুললেন বলিউড অভিনেত্রী ইশা কোপকির। বেশ কয়েক বছর আগেই সিনে দুনিয়া থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন তিনি। সময় দিয়েছেন সংসারে। সন্তানকে নিয়েই ছিলেন ব্যস্ত।
সম্প্রতি আবারও ফিরছেন অভিনয়ে। আর সে উপলক্ষে একটি গণমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাতকারে ইশা কোপিকর বলেন, ‘আমার বলিউড যাত্রা মোটেই সহজ ছিল না। প্রচুর লড়াই করেছি। তবু আমাকে আইটেম গার্লের চরিত্রই দেওয়া হত।’
তিনি আরও বলেন, ‘বহুবার কাস্টিং কাউচের মুখে আমাকে পড়তে হয়েছে। চরিত্র পাওয়ার জন্য অনেক চেষ্টা করতাম। তবে বলা হত পরিচালক বা প্রযোজকের বোন অথবা প্রেমিকা না হলে চরিত্র পাওয়া যাবে না। আমি সেটা পারিনি।’
‘এক সুপারস্টার আমাকে বলেছিলেন যদি তার সঙ্গে আলাদাভাবে দেখা করি তবে তিনি ভালো চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ দেবেন। আমি যাইনি ঘেন্না ধরে গিয়েছিলো সেই সুপারস্টারের উপর’- যোগ করেন ইশা।
শুধু তিনিই নন। এমন আরও অনেকেই আছেন ইশাকে যৌন হেনস্তা করার তালিকায়। খুব পরিচিত এক অভিনেতার সঙ্গে ইশার কাজের কথা হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু এরপর তিনি ইশাকে বলেন, দেহব্যবসায় রাজি থাকলে তবেই অভিনয়ের ছাড়পত্র পাবেন।
এরপর ওই কাজের প্রযোজককে গিয়ে সরাসরি না বলে দেন। ইশা শেষে বলেন, এরকম আরও অনেক অভিযোগ রয়েছে। শুধুমাত্র সম্মানের খাতিরেই এতদিন কিছু বলিনি।

Loading...

No comments

Powered by Blogger.