জেনে নিন সূর্যের আলোর ৩টি উপকার সম্পর্কে


এখন খুব শীত না হলেও বেশ একটু শীত কিন্তু রয়েই গিয়েছে। শীত পরছে পরছে  করেও এখনও যায়নি শীত পরছেনা। আর এই শীত কালে বেশিরভাগ মানুষের একটি প্রিয় অভ্যাস হলো রোদ পোহানো। শীত কালে রোদ পোহানোর মজাই যেন আলাদা। সূর্যের আলো শরীরে পড়লে আরাম লাগা ছাড়া বেশ কিছু উপকারও পাওয়া যায়। অবাক হচ্ছেন? আসুন তাহলে জেনে নেয়া যাক সূর্যের আলোর ৩টি উপকার সম্পর্কে। 
বিষন্নতা কাটায়
বেশ কিছু গবেষনায় দেখা গিয়েছে যে সূর্যের আলো বিষন্নতা কাটাতে সহায়তা করে। কয়েকদিন সূর্যের মূখ না দেখলে অনেক মানুষই মানসিক বিষন্নতায় ভোগা শুরু করে। সূর্যের আলো মস্তিষ্কের প্রাকৃতিক অ্যান্টিডিপ্রেসেন্ট বাড়িয়ে মানসিক বিষন্নতা দূর করে এবং মনকে প্রফুল্ল্য রাখে।

হাড় ভালো রাখে
সূর্যের আলো শরীরে ভিটামিন ডি প্রস্তুত করে। ভিটামিন হাড়কে খাবার থেকে ক্যালসিয়াম শোষণ করে নিতে সহায়তা করে। হাড়ে ক্যালসিয়াম শোষিত হলে হাড় মজবুত হয় এবং হাড় ক্ষয় রোধ পায়। তাই সূর্যের আলো ছোট শিশু ও বয়ষ্কদের হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।
আলঝেইমার রোগীদের জন্য উপকারী
নিয়মিত সূর্যস্নান করা আলঝেইমার রোগীদের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। আলঝেইমার হলো বয়সজনিত একটি জটিল রোগ। একটি গবেষনায় দেখা গিয়েছে যে যেসব আলঝেইমার রোগী নিয়মিত সূর্যের আলোতে যায় তারা অন্য আলঝেইমার রোগীদের থেকে অপেক্ষাকৃত বেশি সুস্থ্ থাকে।
ভালো ঘুম হয়
সকালে সূর্যের আলো চোখে পড়লেই বিরক্ত হয়ে যান? মনে হয় যে ঘুমটাই মাটি? তাহলে জেনে রাখুন, এই সূর্যের আলোই কিন্তু রাতের বেলায় আপনার ঘুম আনতে সহায়ক। টানা কয়েকদিন সূর্যের মুখ দেখতে না পারলে এক পর্যায়ে আপনি আক্রান্ত হবেন অনিদ্রা রোগে! সূর্যের আলো চোখে গেলে চোখ থেকে মস্তিষ্কে একটি সংকেত যায়। এই সংকেতটি ঘুমে সাহায্যকারী হরমোন মেলানোটিন তৈরীতে সহায়তা করে। ফলে শরীরে পর্যাপ্ত পরিমানে মেলানোটিন এর উপস্থিতির কারনে রাতের ঘুম ভালো হয়!

Loading...

No comments

Powered by Blogger.