মজাদার কিমা লেয়ার নান রুটি


উপকরন:
– ২ কাপ ময়দা
– ২ চা চামচ ইষ্ট (ইষ্ট বাজারে কিনতে পাওয়া যায়, উষ্ণ গরম জলেতে ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে)
– ২ চা চামচ চিনি
– ২ টেবিল চামচ খাঁটি তেল বা ঘি (ঘি না থাকলে নাই)
– নুন পরিমাণ মত
– জল পরিমাণ মত।  
প্রনালী:

একটি পাত্রে জল গরম দিন (এই জল থেকে কিছু জল কাছে লাগবে এবং জলের বাষ্প বা গরম ভাপ কাজে লাগবে) এবং কাই বা খামির বানানোর পাত্রে দুইকাপ ময়দা নিন।এক চা চামচ ইষ্ট নিন। তবে এর আগে ময়দায় পরিমান মত নুন ও এক চা চামচ চিনি দিয়ে ভাল করে নাড়িয়ে/মিশিয়ে নিন।ইষ্ট জলেতে গুলে নিয়ে ময়দায় দিয়ে মাখাতে থাকুন এবং গরম জল দিয়ে দিয়ে খামির বানান।   
এখানে একটু সাবধানে, যেহেতু চিনি আছে তাই আস্তে আস্তে অল্প অল্প জল দিয়ে মাখাতে থাকুন।অনেকে এখানে নাকি পাকা কলা পেষ্ট করে দেন (আরো স্বাদের আশায়)। লক্ষ্য রাখবেন খামির যাতে বেশী নরম না হয়ে যায়। খামির হয়ে গেলে এবার তেল (অল্প অল্প করে) দিয়ে আবারো খামির মলে মলে আরো নরম করে নিন। খামিরকে একটা ধাতব/প্লাস্টিকের পাত্রে কিছুক্ষন রেখে গরম করা জলের পাত্রের উপর দিয়ে দিন ( গ্যাস চালু থাকার দরকার নেই)।
জল থেকে উঠা বাষ্প খামিরের তলায় লাগবে, খামির হালকা গরমে ফুলে উঠবে। বন্ধ গ্যাসে গরম জল, বাষ্প উঠছে তার উপর একটা প্লাস্টিকের পাত্রে খামির দেয়া হয়েছে।মিনিট বিশেক পর খামির তুলে দেখুন, কি সুন্দর হয়েছে।ফুলে বড় হয়েছে এবং ভাল ঘ্রান বেরুচ্ছে।রুটি বেলার জন্য খামিরকে ছয় ভাগে ভাগ করুন (ছোট বানাতে চাইলে দুইকাপ ময়দায় আটটি বানাতে পারেন)রুটি বেলে নিন।তাওয়া গরম করে সাধারন রুটির মত করে সেঁকে নিন।তবে ভাল একটা পাতলা কাপড় (পাফ বানিয়ে নিন) দিয়ে চাপ দিয়ে দিয়ে সেঁকে নিন।  
যাতে রুটির প্রতি অংশে আগুনের আঁচ লাগে।ব্যস, হয়ে গেল ‘হোম মেইড নান রুটি’!

Loading...

No comments

Powered by Blogger.