গোলাপি বল নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিলেন সৌরভ



গোলাপি বল নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিলেন সৌরভ

ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থার (বিসিসিআই) দায়িত্ব নিয়েছেন সদ্যই। এর পর সব পক্ষকে রাজি করিয়ে বাজিমাত করেছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। ইডেন গার্ডেনসে দিন রাতের টেস্ট আয়োজন করে ঐতিহাসিক মুহূর্ত উপহার দিতে চলেছেন দেশটির সাবেক এই অধিনায়ক। প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ। সব ঠিক হলেও সমস্যায় ছিল ভালো গুণমানের গোলাপি বল নিয়ে। শেষ পর্যন্ত এর সঠিক সমাধানও খুঁজে বের করা হয়েছে।


২২ নভেম্বর কলকাতার মাঠে এই ম্যাচের জন্য প্রথমে ভাবনায় ছিল ‘কুকাবুরা’ বল। যদিও শেষ পর্যন্ত ৬ ডজন ‘এসজি’ বল অর্ডার করেছে বিসিসিআই। এরইমধ্যেই সৌরভ জানিয়ে দিয়েছেন, ইডেনে ঐতিহাসিক ম্যাচে ‘এসজি’ গোলাপি বলে খেলা হবে। সেক্ষেত্রে ম্যাচ ও ম্যাচের আগের প্রস্তুতির জন্য বাড়তি বল সংগ্রহ করে রাখতে চলেছে ভারতীয় বোর্ড।

ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে গোলাপি বলে প্রথমবারের মতো খেলা হয়েছিল ২০১৬ সালে।  ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) প্রধান থাকা অবস্থায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সৌরভ নিজেই। যদিও সেবার ‘কুকাবুরা’ দিয়েই খেলানো হয়েছিল।

বাংলাদেশ-ভারতের প্রথম টেস্টে ‘এসজি’ বল দিয়ে খেলানো হবে। ইনডোরের এই ম্যাচটি দিনের বেলায়। প্রথাগত ভাবেই লাল বলে খেলা হবে। সংবাদ মাধ্যমে বিসিসিআই’র সভাপতি সৌরভ বলেছেন, প্রথম ম্যাচে ‘এসজি’ বল থাকছে। তাই দ্বিতীয় ম্যাচেও এটাই থাকবে।


ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী সংস্থা ‘এসজি’র মার্কেটিং ডিরেক্টর পারস আনন্দ জানিয়েছেন, ‘বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে ৬ ডজন বল অর্ডার দেয়া হয়েছে। পরের সপ্তাহের মাঝামাঝি সময়ে ডেলিভারি হয়ে যাবে।

তিনি বলেন, ভারতে এই মুহূর্তে গোলাপি বলে ম্যাচ খেলা শুরু হলেও ২০১৬-১৭ থেকে আমরা গোপালি বল নিয়ে কাজ করে আসছি। স্বল্প সময়ে ৭২টি ভালো মানের বল তৈরি করা সংস্থার কাছে চ্যালেঞ্জ এবং আমরা এই চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত।’
Loading...

No comments

Powered by Blogger.