প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র সহ ধৃত দুই দুষ্কৃতি



মৌমিতা সিনহা, হুগলি:   বিগত প্রায় দেড় দশক ধরে চুঁচুড়ার রবীন্দ্রনগর দুঃষ্কৃতিদের আখরা হয়ে উঠেছিলো। যার নেপথ্যে ছিলো এই এলাকার বাসিন্দা টোটন বিশ্বাস। টোটন এন্ড কোম্পানীর দাপটে নাজেহাল অবস্থা হয়ে উঠেছিলো সাধারন মানুষের। এর আগে বহুবার ওই এলাকায় পুলিশি তল্লাশি চললেও অশান্ত রবীন্দ্রনগরে শান্তি ফিরছিলো না। তবে সম্প্রতি চন্দননগর কমিশনারেটের পুলিশ টোটন এন্ড কোম্পানির পতনে কোমর বেঁধে নেমেছে। যার ফলস্বরুপ ইতিমধ্যেই টোটন সহ মোট ২৬জন গারদের পিছনে রয়েছে। উদ্ধার হয়েছে প্রচুর  আগ্নেয়াস্ত্র। বিগত কয়েকমাস ধরে এই এলাকায় রয়েছে ২৪ঘন্টার পুলিশি ক্যাম্প। পাশাপাশি প্রায় প্রতিদিনই চলছে এখানে তল্লাশি। রবিবার এই রবীন্দ্রনগরে হানা দিয়ে টোটনের দুই সাগরেদ প্রসেনজিৎ সাহা ওরফে নেপা ওরফে চিকনা এবং মিলন সিং ওরফে ভাগ্নাকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ। তাঁদের কাছ থেকে দুটি কার্বাইন সহ মোট ২১ টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ১০০-র বেশী কার্তুজ উদ্ধার হয়েছে। উল্লেখ্য এই নিয়ে টোটনের ডেরা থেকে মোট ৩টি কার্বাইন ও ৬০০-র বেশী গুলি উদ্ধার হলো। এবিষয়ে চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটের কমিশনার হুমায়ুন কবীর বলেন রবীন্দ্রনগর থেকে দুঃষ্কৃতিরাজ শেষ করাই আমাদের লক্ষ্য।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.