ফের ভাইরাল রাণু মণ্ডলের গান



হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে রাণু মণ্ডলের ‘তেরি মেরি কাহানি’ উপভোগ করেছিলেন শ্রোতারা। সামাজিক মাধ্যমের সৌজন্যে মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় গানটি। মূলত এই গানের মাধ্যমেই ব্যাপক পরিচিতি পান রাণু মণ্ডল। এরপর থেকেই শ্রোতারা মুখিয়ে ছিলেন রাণুর মুখে নতুন গান শুনতে। দীপাবলি উৎসবে সেই ইচ্ছা পূরণ করলেন রাণু।
২৪ বছর পূরণ করে ২৫-এ পা দিল ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে’। এটা হয়তো রাণু মণ্ডলের অজানা নয়। দীপাবলির দিন ছবির সুপারহিট গান ‘তুঝে দেখা তো ইয়ে জানা সনম’ ফের নতুন ভাবে গাইলেন। এই গানেও শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছেন রাণু মণ্ডল।
ছোটপর্দার বাংলা রিয়্যালিটি শো ‘কমেডি স্টার্স’-এ পৌঁছাতেই রাণুকে গান গাওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়। সেখানেই তিনি শাহরু খান-কাজলের জনপ্রিয় এই ছবির গান সবাইকে গেয়ে শোনান। এই গানেও প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।
একসময় ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাণাঘাট স্টেশনে গান গেয়েই অন্ন জোগাড় করতেন রাণু। তার সেই গান সোশ্যালে আসতেই ভাগ্যের চাকা ঘুরতে আরম্ভ করে। তখন তাকে প্রচারের আলোয় আসতে সাহায্য করেছিল লতা মঙ্গেশকরের গান। ‘তুঝে দেখা তো ইয়ে জানা সনম’ গানও তার গাওয়া। এটাতেও বাজিমাত করলেন এই গায়িকা।
রাণু মণ্ডলের গান এক রিয়েলিটি শো-এ শুনে ভালো লেগেছিল সুরকার-গায়ক-অভিনেতা হিমেশ রেশমিয়ার। এরপরেই তিনি রাণুকে দিয়ে প্লে-ব্যাক করান তার নিজের ছবিতে। সেই গান সাড়া ফেলতেই হিমেশের সঙ্গে আরও তিনটি গান করেন রাণু। এই তিনটি গান-‘তেরি মেরি কাহানি’, ‘আদত’, ‘আশিরী মে তেরি সামিল’। যদিও রাণুর এই সাফল্য খুব ভালো নজরে দেখেননি কোকিলকণ্ঠী। তিনি বলেছিলেন, কারোর নকল হয়ে কেউ বেশি দিন সাফল্য ধরে রাখতে পারে না।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.