অদ্ভুত ‘লেজ’ তরুণীর; কাটতে হলো অপারেশন করে!



২২ বছর বয়সী এক তরুণীর নিতম্বে এমন এক গ্রোথ দেখা দিযেছিল, যা অনেকটা লেজের মতো। এই অদ্ভুত সমস্যা নিয়ে তিনি হাজির হন বিখ্যাত চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ সান্ড্রা লির কাছে। ক্যালিফোর্নিয়ার এই চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ইন্টারনেট দুনিয়ে’ডক্টর পিম্পল প্রপার’ নামেই পরিচিত। সম্প্রতি তিনি এই আশ্চর্য অস্ত্রোপচার করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন।
দ্য সান জানিয়েছে, ২২ বছর বয়সী ওই তরুণীর নাম টেইলর। তিনি রীতিমতো অস্বস্তি নিয়ে হাজির হন সান্ড্রা লির চেম্বারে। তিনি জানান, জন্মের সময় থেকেই তার ওই স্থানে একটা ফোলা মতো অংশ ছিল। পরে তা বাড়তে থাকে। এক ডাক্তারকে দিয়ে ২০১৬ সালে এক বার সেটির চিকিৎসাও করান টেইলর। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পরে তা আবার ফিরে আসে।সান্ড্রালির মতে, এটি একটি ‘লিপোমা’। যা বিপজ্জনক নয়। এটি দেহের যে কোনো জায়গাতেই দেখা দিতে পারে। টেইলরের ক্ষেত্রে এই লিপোমাটি বিশেষ অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। কারণ, এটি ছিল তার নিতম্বে। এর কারণে তিনি বসতে কিংবা শুতে পারতেন না। সাধারণত লিপোমা জন্মগতভাবে হয় না। টেইলরের মেরুদণ্ডে স্ক্যান করে দেখা যায়, যে সেখানে চর্বি জমা হয়েই লেজের আকৃতি নিয়েছে।
এই চর্বি কেটে বাদ দেওয়া ছিল অত্যন্ত কঠিন কাজ। এতে টেইলরের স্পাইনাল কর্ড ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারত। কিন্তু সব ঝুঁকি মাথায় নিয়েই টেইলর অস্ত্রোপচারে সম্মত হন। সফল অস্ত্রোপচার করেন সান্ড্রা। টেইলর মুক্তি পান তার ‘লেজ’ থেকে। সংবাদমাধ্যমকে টেইলর জানিয়েছেন, ডক্টর পিম্পল প্রপারের চিকিৎসায় তিনি খুশি। তার জীবন থেকে একটা বড় ভার নেমে গেছে। নিশ্চিন্ত হতে এবার তিনি কোনো নিউরো সার্জনের পরামর্শ নেবেন।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.