ল্যাপটপ কোলে নিয়ে কাজ করা পুরুষের জন্য খুবই ক্ষতি


প্রযুক্তির কল্যাণে অনেক কিছুই সহজ হয়েছে। প্রযুক্তির আরেকটি কল্যাণকর সৃষ্টি হচ্ছে ল্যাপটপ। বহন করতে সহজ হওয়ায় ল্যাপটপ এখন খুবই জনপ্রিয়।
এটি খুব সহজে যেমন বহন করা যায়, তেমনি ব্যবহার করতে টেবিলের প্রয়োজন হয় না। ল্যাপটপ সাধারণত কোলে নিয়ে কাজ করে থাকি আমরা।
এছাড়া আরামে শুয়ে-বসে কাজ করার জন্য ল্যাপটপ অনেকেরই পছন্দ। ইংরেজি শব্দ ‘ল্যাপ’ এর অর্থ হলো কোল। সেখান থেকেই ল্যাপটপ শব্দের উৎপত্তি।
ল্যাপটপ কোলে নিয়ে কাজ করা পুরুষের জন্য খুবই ক্ষতির কারণ। ক্রমাগত ল্যাপটপ কোলের উপর নিয়ে কাজ করলে একজন পুরুষ হারাতে পারেন বাবা হওয়ার ক্ষমতা। তবে নারীরা এ ক্ষেত্রে মুক্ত, তারা ল্যাপটপ কোলে নিয়ে কাজ করলেও কোন সমস্যায় পড়বেনা।
সম্প্রতি এক গবেষণায় এমন তথ্যই উঠে এসেছে। গবেষণায় বলা হয়েছে, ল্যাপটপ ব্যবহারের সময় নিচের অংশ থেকে তাপ নির্গত হয়। সেই তাপেই ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় শুক্রাণু। ল্যাপটপ কোলে নিয়ে কাজ করার ফলে ল্যাপটপ থেকে নির্গত তাপ বাইরে বেরতে পারে না। কারণ একেক কোম্পানির ল্যাপটপ থেকে নির্গত তাপের পরিমাণ একেকরকম।
জানা গেছে, দৈনিক মোটামুটি এক ঘণ্টার বেশি ল্যাপটপ কোলে নিয়ে কাজ করলেই বিপদের সম্ভাবনা রয়েছে। তাই গবেষক দলের পক্ষ থেকে পুরুষদের সাবধানে ল্যাপটপ ব্যবহার করতে বলা হয়েছে।
জানা গেছে, কোলের ওপর ল্যাপটপ রাখলে ‘ল্যাপটপ থাই ডিসঅর্ডার’ নামে ত্বকের সমস্যা তৈরি হয়। সাধারণত তরুণরা দীর্ঘক্ষণ কোলের ওপর ল্যাপটপ রেখে ব্যবহার করে। এতে প্রাথমিক অবস্থায় তাদের উরুতে হালকা দাগ দেখা যায় যা পরবর্তীতে গাড় কালো হয়ে ত্বকে সমস্যা তৈরি করে।

Loading...

No comments

Powered by Blogger.