নারায়ণকুড়ি উন্নয়ন পর্যটনকেন্দ্রের শিলান্যাস



জয়ন্ত সাহা,আসানসোল:   রানিগঞ্জের এগারা পঞ্চায়েতের অন্তর্গত নারায়ণকুড়ি অঞ্চলের সৌন্দর্যায়নের জন্যে এডিডিএর পক্ষ থেকে ১ কোটি ৪৫ লাখ ৮৩ হাজার ৪৬৮ টাকা বরাদ্দ করা হয় ৷ যার মাধ্যমে ওই এলাকার সার্বিক উন্নয়ন ও পর্যটনকেন্দ্র হিসাবে পরিকাঠামো গড়ে তোলা হবে ৷ উল্লেখ্য রানিগঞ্জের নারায়ণকুড়ি অঞ্চলেই প্রথম প্রিন্স দ্বারকানাথ ঠাকুর কয়লা শিল্পের ব্যবসা পত্তন করে কয়লা খনি গড়ে তুলে ছিলেন ৷ সেই সময় মাটির তলা থেকে কয়লা খনন করে ঘোড়ায় টানা গাড়িতে করে মাটির ওপরে তুলে মজুত করার পর দামোদরের বুকে নৌকা মারফৎ কয়লা কলকাতা বন্দরের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হোতো ৷ প্রিন্স দ্বারকানাথের স্মৃতি বিজড়িত নারায়ণকুড়িকে পর্যটন মানচিত্রে তুলে ধরতে বর্তমান রাজ্য সরকার উদ্যোগী হয় ৷ সেই হিসাবে দামোদর নদ তীরবর্তী অঞ্চলে প্রিন্স দ্বারকাথানের এক মর্মর মূর্তি গড়ে তোলা হয় সরকারের পক্ষ থেকে ৷ পরবর্তী ক্ষেত্রে যা রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব এসে উন্মোচন করেন ৷ একই সাথে রাজ্য সরকার ওই অঞ্চলটিকে ২০১৩ সালে হেরিটেজ হিসাবে ঘোষণা করে ৷ এর পরেই জায়গাটিকে পর্যটন কেন্দ্র হিসাবে গড়ে তুলতে ১ কোটি ৪৫ লাখ ৮৩ হাজার ৪৬৮ টাকা বরাদ্দ করা হয় ৷ শুক্রবার এই প্রকল্পের কাজের শিলান্যাস করেন এডিডিএর চেয়ারম্যান ও আসানসোল দক্ষিণের বিধায়ক তাপস ব্যানার্জি ৷ এছাড়াও এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রানিগঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি বিনোদ নোনিয়া , রানিগঞ্জ গ্রামীন অঞ্চলের ব্লক সভাপতি বাবু রায় , ভূতনাথ মণ্ডল সহ আরো অনেকে ৷
Loading...

No comments

Powered by Blogger.