পুরুলিয়া জেলা পুলিশ কে গর্বিত করলো দুই পুলিশ স্বেচ্ছাসেবক!কিভাবে?


দীপক রাম,পুরুলিয়া:  রাজ্যজুড়ে সিভিক ভলেন্টিয়ারের কাজকর্ম নিয়ে যখন নানা  সমালোচনা ও বিতর্ক । তখন পুরুলিয়া  সততা প্রমান দিয়ে পুরুলিয়া জেলা পুলিশ কে গর্বিত করলো দুই পুলিশ স্বেচ্ছাসেবকl গত রবিবার এটিএম থেকে টাকা কুড়িয়ে পেয়ে সেই টাকা থানায় জমা দিয়ে নিজে সততা পরিচয় দিলেন পুরুলিয়া মফস্বল থানায় কর্মরত সিভিক ভলেন্টিয়ার বোঙাবাড়ির বাসিন্দা অমিত রাজোয়াড় ও সন্তোষ মাহাতো। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত রবিবার লক্ষ্মী পুজোর দিন সকালে পুলিশের ওই দুই সিভিক স্বেচ্ছাসেবকই থানার পাশে এমএসএ ময়দান লাগোয়া একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের এটিএমে টাকা তুলতে যান। সেখানে এটিএম মেশিনের যে অংশ থেকে টাকা বের হয় সেখানে দু’হাজার টাকার চারটে নোট তারা পড়ে থাকতে দেখেন। আচমকা সেখানে টাকা পড়ে থাকতে দেখে তারা ওই টাকার মালিকের খোঁজে এদিক ওদিক ঘুরে দেখেনl কিন্তু  কেউ না থাকায় তারা ওই টাকা নিয়ে মফস্বল থানায় জমা দেন। পুলিশ আধিকারিকদেরকে বিষয়টি বিস্তারিত ভাবে জানান। বিষয় টি জেলা পুলিশের কাছে এই খবর পৌঁছাতে ওই সিভিক ভলেন্টিয়ার দের প্রশংসা করা হয় l এদিন  পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া বলেন, “ওই দুই সিভিক ভলান্টিয়ার সত্যিই খুব ভাল কাজ করেছেন। তাদের দু’জনেকই আমরা পুরষ্কৃত করব।” এদিন  এই দুই পুলিশ স্বেচ্ছাসেবকের সততায় গর্বিত পুরুলিয়া জেলা পুলিশ। সোমবার নিয়ম মেনে  পুরুলিয়া মফস্বল থানা উদ্ধার হওয়া ওই টাকার চালান কেটে সেই টাকা সংশ্লিষ্ট  ব্যাংকে জমা করে দেওয়া হয় । ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, বিধি মোতাবেক দশ বছর এই টাকা ব্যাংকেই জমা থাকবে। কোন দাবিদার না থাকলে তা দশ বছর পর সরকারের হয়ে যাবে।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.