ফ্রান্সে মোরগের কণ্ঠরোধের চেষ্টা আদালতে নাকচ


ফ্রান্সের রশফোর্ট অঞ্চলের এক আদালতে মরিস নামের একটি মোরগের ইচ্ছেমতো গলা ছেড়ে ডাকার পক্ষে রায় দেয়া হয়েছে।আটলান্টিক মহাসাগরের উপকূলবর্তী ফ্রান্সের ওলেরন দ্বীপে নিয়মিত ছুটি কাটাতে যাওয়া অবসরপ্রাপ্ত এক দম্পতি আদালতে এই মোরগের ডাক থামাতে মামলা করেন।
আদালতে এই মামলার রায়ে মামলাকারীদেরকে ক্ষতিপূরণ ও মামলা বাবদ এক হাজার ডলারের বেশি অর্থ দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই মামলা ফ্রান্সে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। মোরগের মালিক করিন ফেস্যোঁর মতে, তার মরিসের ডাক নিয়ে কেউ কখনও অভিযোগ করেনি। এই রায় গোটা ফ্রান্সের গ্রামীণ সংস্কৃতির বিজয়।
ফ্রান্সের অনেক গ্রামবাসীর অভিযোগ, গ্রামে নিরিবিলি সময় কাটানোর জন্য শহরের মানুষ গ্রামে একটা বাড়ি কিনছেন। কিন্তু তারা গ্রামের পশুপাখির ডাক, পোকামাকড়ের ঘুরে বেড়ানো মানতে রাজি না।
এই বিষয়ে মোরগটির মালিক করিন বলেন, আমাদের এভাবে কোণঠাসা করা যাবে না। প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়মকে মেনে নিতে হবে। গ্রামের প্রকৃতিতে এগুলো স্বাভাবিক শব্দ।
এধরনের শব্দ আমাদের জীবনের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। আমাদের স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা আমাদের পাশে আছেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
মরিসের ভোরবেলা ডাকার অধিকারকে সমর্থন করে এক লাখ চল্লিশ হাজার মানুষ একটি আবেদনে সই করেন। এমনকি স্থানীয় এক ব্যবসায়ী মরিসের সমর্থনে টিশার্ট বিক্রি করেন।

Loading...

No comments

Powered by Blogger.