কুমিরের সঙ্গে লড়াই বান্ধবীকে বাঁচাতে


খেলার সঙ্গীকে বাঁচাতে কুমিরের পিঠে ঝাঁপিয়ে পড়েছে ১১ বছরের শিশু রেবেকা। শুধু তাই নয়, উন্মত্ত কুমিরটির চোখে আঘাত করে বান্ধবী লাতোয়ার জীবন বাঁচাতে সক্ষমও হয়েছে সে।
ঘটনাটি জিম্বাবুয়ের হাওঞ্জ শহরের। পাহাড়ি এলাকাটির নদী-নালাগুলোতে কুমিরের আবাসস্থল।
নদীর ধারে খেলা করছিলো লাতোয়া মুওয়ানি। হঠাৎ একটি কুমির তাড়া করে ওকে। প্রাণভয়ে চিৎকার করতে থাকে ছোট্ট লাতোয়া।
লাতোয়ার চিৎকারে ছুটে যায় রেবেকা। আশ-পাশে কাউকে না দেখে নিজেই ঝাঁপিয়ে পড়ে কুমিরটির ওপর। রাগে উন্মত্ত কুমিরটিকে পরাস্ত করতে উপায় না দেখে চোখে আঙুল ঢুকিয়ে দেয় সে।
একসময় ব্যথা সইতে না পেরে পালিয়ে যায় কুমিরটি। বেঁচে যায় দু’বন্ধু।
এ ঘটনায় অনেকেই রেবেকার প্রশংসা করছে। তবে দু’জনের প্রাণ কতটা ঝুঁকিতে ছিল ভেবে শিউরে ‍উঠেছেন কেউ কেউ। 
তবে বন্ধুর প্রতি রেবেকার অকৃত্রিম ভালোবাসা সত্যিই দৃষ্টান্তমূলক উদাহরণ বলেই মনে করছেন বেশিরভাগ মানুষ।  

Loading...

No comments

Powered by Blogger.