এক রাতেই কোটিপতি ২৪ বছরের যুবক!


পড়াশোনা মাত্র শেষ করেছেন। এরপর হঠাৎ করেই সারা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিলেন এক যুবক। ২৪ বছরের ওই যুবক এক রাতেই হয়ে গেলেন বিশ্বের অন্যতম ধনী! হয়ে গেলেন কোটি কোটি ডলারের মালিক।

ওয়াশিংটনের সিয়াটলে জন্ম হলেও হংকংয়ে বেড়ে ওঠেন এরিক। তবে এই কোটি কোটি ডলারের মালিক হওয়ার জন্য এরিককে একবিন্দুও পরিশ্রম করতে হয়নি। পরিবারের কাছ থেকে ৩৮৮ কোটি ডলার উপহার পেয়ে রাতারাতিই হয়ে গেলেন বিলিয়নিয়ার। 
এরিকের এই ঘটনা অনেকটা আকাশের চাঁদ হাতে পাওয়ার মতোই। আর এই ‘চাঁদ’ পেয়ে জীবনটাকে এখন অন্যভাবে উপভোগ করছেন তিনি। কখনো নামী মডেলদের সঙ্গে পার্টি করছেন। আবার কখনো বিল গেটসদের সঙ্গে একই টেবিলে ওঠাবসা করছেন। কখনো বা নামজাদা অভিনেতার পাশে বসে বাস্কেটবল খেলা দেখছেন।
পারিবারিক ব্যবসা রয়েছে এরিকের। তার বাবা সাইনো বায়োফার্মাসিউটিকল লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা। আর তার মা একটি সংস্থার এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর। এই সংস্থার সম্পত্তির পরিমাণ ৮৫০ কোটি ডলার। আর সেই সম্পত্তির একটা অংশই ছেলে এরিককে উপহার দিয়েছেন টেসি দম্পতি। ফলে রাতারাতিই বিলিয়নিয়র হয়েছেন এরিক। 
এদিকে  এরিকের এই বিলাসবহুল জীবনের পরিচয় সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলেই স্পষ্ট হয়ে উঠে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি বেশ জনপ্রিয়। এতে তার ১০ হাজারেরও বেশি ফলোয়ার রয়েছে। তাদের জন্য প্রায়ই ছবি পোস্ট করেন তিনি।
এতে দেখা যায় রিহানা, বেলা হাদিদের মতো একাধিক সেলিব্রেটির সঙ্গে দুর্দান্ত সব ছবি আপলোড করেছেন এরিক। তাদের সঙ্গে পার্টি করে বেড়াচ্ছেন। কখনো ফ্রান্সের প্রাক্তন ফার্স্ট লেডি কার্লা ব্রুনির সঙ্গে, আবার কখনো ইউরোপের মোনাকের প্রিন্সেস চার্লিনের সঙ্গে ফটোশুট করছেন। কখনো বা ডলফিনের সঙ্গে স্নান উপভোগ করছেন। 
বর্তমানে এরিকের সম্পত্তি রাতারাতি স্টারবাকস্-এর প্রতিষ্ঠাতা হোয়ার্ড এবং স্ন্যাপচ্যাট-এর সিইও ইভানের থেকেও বেশি। ফোর্বস ম্যাগাজিন অনুসারে, এই উপহার তাকে বিশ্বের প্রথম সাড়ে পাঁচশ’ জন ধনীর তালিকায় নিয়ে এসেছে। 
এই কোটিপতি যুবক এরিকের বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে যাওয়ার প্রবল আগ্রহ রয়েছে। কখনো দুবাই, কখনো রাশিয়া, আবার হঠাৎ করেই কখনো প্যারিসে চলে যান।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.