পুকুর ভরাট কেন্দ্র করে মহিলার উপর তৃণমূল কর্মীর অত্যাচার


পুকুর ভরাট করাকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে একটি মহিলার উপর মানসিক অত্যাচার চালাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্য নয়ন গুহ। ঘটনাটি ঘটেছে, হাওড়া বালি সাপুইপারা রবীন্দ্রপল্লী এলাকায়। তার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠে এসেছে। একটি পুকুর ভরাট করাকে কেন্দ্র করে বাড়িতে গিয়ে সেই মহিলাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়। তার ছেলেকে তুলে প্রাণে মেরে দেবার চেষ্টা চালায়। এলাকায় দুষ্কৃতীদের নিয়ে তাণ্ডব করে এই নয়ন গুহ। এই মহিলা অনেকবার স্থানীয় প্রশাসনকে জানালে তার কোন সুরাহা হয়নি। এলাকার বিধায়কের কাছ থেকেও কোন সদুত্তর পাওয়া যায়নি। বিষয়টা দিদিকে বল কর্মসূচির হবার পর থেকে দিদির ফোন নম্বরে ফোন করে সেখানেও কোন সদুত্তর পাওয়া যায়নি।  ইতিমধ্যেই তিনি বিভিন্ন জেলা দপ্তর থেকে আরম্ভ করে, ভিডিও বি এল আর ও এস ডি ও এস পি এবং কেতা সুরক্ষা দপ্তর নবান্নে চিঠি করা এবং বিভিন্ন জায়গায় তিনি যান। তিনি যেখানে যান  সেখানেও তাকে হেনস্থা করা হয় এবং তার কোনো কাগজপত্র না দেখে তাকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। বালি নিশ্চিন্দা থানা পুলিশের কাছে যখন তিনি দ্বারস্থ হন প্রশাসনের কাছ থেকে কোনো সদুত্তর পাওয়া যায়নি। তাকে বালি নিশ্চিন্দা থানার বড়বাবু দীর্ঘক্ষন থানার মধ্যে বসিয়ে রাখেন এবং তাকে গালিগালাজ করে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। পুলিশের নির্দেশে পুকুর ভরাট করার কাজ চলছে। সিভিল ড্রেস দাঁড়িয়ে থেকে সেই অফিসার এখানে মদদ করছেন। নয়ন গুহ  এলাকায় গুন্ডাবাহিনী দের নিয়ে তাণ্ডব চালাচ্ছে। ইতিমধ্যেই আতঙ্কে রয়েছে চৌধুরী পরিবার। চৌধুরী পরিবার নরেন্দ্র মোদীর দ্বারস্থ হন নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি করেন এবং তার এখনো পর্যন্ত কোন সদুত্তর পাওয়া যায়নি। গোটা বিষয়টা নিয়ে ইতিমধ্যেই আতঙ্কে রয়েছে এই পরিবার। যেখানে সারা রাজ্যের জল ধরো জল ভরো প্রকল্প চলছে। সেখানে প্রমোটিং করবেন বলে রাতারাতি পুকুর ভরাট করে ফেলছেন এই নয়ন গুহ। তাহলে সেখানে দিদির কথা অমান্য করেই চলছে এই প্রকল্প ।


Loading...

No comments

Powered by Blogger.