চকলেটের পুরোনো ইতিহাস জানুন



চকলেট খেতে পছন্দ করে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া খুবই কষ্ট কর হবে। আর চকলেট প্রিয় মানুষ গুলো জানেন কী চকলেটের পুরোনো ইতিহাস। অনেকের ধারণা, চকলেটের উৎপত্তি মেক্সিকো ও মধ্য আমেরিকায়।
জানা যায়, মেক্সিকো ও মধ্য আমেরিকা অঞ্চলের কোকোয়া গাছ থেকে আহরণ করা কোকোয়া ফল থেকে তৈরি করা হয় মূল্যবান পণ্য। যা অভিজাত শ্রেণি খাদ্য ও পানীয় হিসেবে আর বিনিময়যোগ্য পণ্য হিসেবে প্রচলন ঘটে অঞ্চলে।
কিন্তু নতুন গবেষণায় দেখা গেছে চকলেটের ইতিহাস আরও ৫ হাজার বছরেরও পুরোনো। এর উৎপাদন শুরু করেছিল অ্যামাজন থেকে। এই বনের ভেতরেই স্থানীয় মানুষ খাদ্য হিসেবে গ্রহণ করে চকলেটকে। দেখা গেছে, এই অঞ্চলের মানুষ ৫ হাজার বছর আগে থেকেই খাদ্য ও পানীয় হিসেবে চকলেট ব্যবহার করতো। প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনস্থলে ২১০০ থেকে ৫৩০০ বছরের পুরনো মাটির পাত্র পরীক্ষা করে এর প্রমাণ পাওয়া গেছে।
গবেষণা থেকে দেখা যাচ্ছে, কোকোয়া ফলের সঙ্গে অন্য বীজ মিশিয়ে তৈরি পানীয় ওইসব পাত্রে করে পরিবেশন করা হতো। কোকোয়া গাছের উৎপত্তি দক্ষিণ আমেরিকার উত্তর-পশ্চিম অংশে, অ্যামাজন নদীর উজান অঞ্চলে। গাছটির চাষাবাদও শুরু হয়েছিল সেখানেই। অ্যামাজনিয়া থেকে প্রায় ১ হাজার ৫০০ বছর পর মেক্সিকো ও মধ্য আমেরিকায় চকলেটের প্রচলন ঘটে। এরপর ১৫২০ সালে স্প্যানিশ অনুপ্রবেশকারীরা ইউরোপে নতুন এ খাদ্যের প্রসার ঘটায়। বর্তমানে এ খাদ্য ও প্রসাধন পণ্য চকলেটের জনপ্রিয়তা বিশ্বজুড়ে।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.