ফেসবুকে অভিনব প্রতারনার ফাঁদে ছাত্রী! নেপথ্যে অন্য আরেক ছাত্রী



মৃন্ময় নস্কর, দঃ ২৪পরগনাঃ ফেসবুক যে বিপদও ঘনিয়ে আনে তারই প্রমান মিলল আবার। গলা পরিবর্তন করে একজন ২২ বছরের কলেজ ছাত্রীর সাথে কথা বলে পরে আর জে রাহুল নামে ভুয়ো ফেসবুক খুলে কলেজ ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক পাতিয়ে তাঁকে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তার হল আর এক কলেজ ছাত্রী। অভিযুক্ত ছাত্রীর নাম মৌমিতা চৌধুরী । তার বাড়ি হুগলীর শেওড়াফুলি এলাকায়। বারুইপুর জেলা পুলিশের সাইবার সেল অভিযুক্তর বাড়ি থেকে আরও ৬ টি মোবাইল উদ্ধার করেছে। অভিযুক্ত ছাত্রীকে বৃহস্পতিবার দুপুরে বারুইপুর আদালতে তোলা হয়।

ঘটনা প্রসঙ্গে পুলিশ জানায়, ভাঙরের কাশিপুর থানা এলাকার এক কলেজ ছাত্রীর সাথে ২০১৮ এর নভেম্বার মাসে আর জে রাহুলের সাথে ভুয়ো ফেস বুক প্রফাইলের মাধ্যমে বন্ধুত্ব হয়। কাশিপুর থানা এলাকার কলেজ ছাত্রী ঘুণাক্ষরেও জানতে পারেনি আর জে রাহুল বলে যার সাথে ফেস বুকে বন্ধুত্ব হয়েছে সেও এক জন মেয়ে অভিযুক্ত কলেজ ছাত্রীর নাম মৌমিতা চৌধুরী। এরই মধ্যে তাদের বন্ধুত্ব প্রেমের সম্পর্কে গড়ালে আর জে রাহুল রুপি মৌমিতা জানুয়ারি মাসে ওই কলেজ ছাত্রীর কাছ থেকে ফোন নাম্বার নিয়ে রীতিমত ছেলের গলা করেই তার সাথে কথা বলতে থাকে।কথা বলাকালিন অভিযুক্ত আর জে রাহুল রুপি মৌমিতা তাকে বিয়েরও প্রস্তাব দিয়েছিল। সেই বিয়ের প্রস্তাবের বিষয়ে প্রতারিত কলেজ ছাত্রী তাকে এই বিষয়ে বাড়ির অভিভাবকদের সাথে কথা বলতে বলে। কিন্তু বিষয়টি মানতে না চেয়ে উল্টে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতারিত কলেজ ছাত্রীকে উদ্দেশ্য করে অশ্লীল কথা বার্তা ও ছবি দিতে থাকে অভিযুক্ত। এর পরেই ফেব্রুয়ারি মাসে প্রতারিত কলেজ ছাত্রী বারুইপুর সাইবার সেল ও কাশিপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করে। এর পরই বারুইপুর সাইবার সেলের ওসি জয়শ্রী নস্কর এই ঘটনার জোরদার তদন্তে নেমে জানতে পারেন আর জে রাহুলের ভুয়ো ফেসবুক প্রোফাইল, আসল প্রোফাইল শেওরাফুলির বাসিন্দা কলেজ ছাত্রী মৌমিতা চৌধুরীর।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.