জগাই মাধাই এর সরকার বাংলাতে এন আর সি করবে:মমতা ব্যানার্জী




রেখা রায়, উত্তর দিনাজপুর : দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মাননীয়া মমতা বন্দোপাধ্যায় বালুরঘাট লোকসভা আসনের তৃণমূল কংগ্রেসের দ্বিতীয় বারের প্রার্থী  অর্পিতা ঘোষের সমর্থনে নির্বাচনী সভা হল ইটাহার বিধিবাড়ী ফুটবল মাঠে। এদিন তিনি দুপুর ১ঃ২০ মিনিটে হেলিকপ্টার করে মাঠে নেমেই সোজা উঠে বক্তব্য রাখেন কর্মী সমর্থক দের উদ্দ্যেশ্যে। কাতারে কাতারে মানুষ এদিন ইটাহার ব্লকের নানান অঞ্চল থেকে এসে যোগ দেন মুখ্যমন্ত্রীর সভায়। সকাল থেকে কর্মী সমর্থক তেমন চোখে না পরলেও বেলা যতা গড়াতে থাকে কর্মী সমর্থকদের ভীড় তত বাড়তে থাকে। অধীর আগ্রহে কর্মী সমর্থক রা বসে থাকার পর মুখ্যমন্ত্রী বক্তিতা শুরু করলেন ১ঃ৩০ নাগাদ। প্রথমেই তিনি অন্যান্য জেলার সভার মতই বিজেপি সরকারকে দেশ থেকে তাড়ানোর ডাক দেন। তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের জনবীরধী নীতি নিয়ে সেচ্চার হন। এবং বলেন বিজেপি হাটাও দেশ বাঁচাও। 'তিনি আরো বলেন জগাই মাধাই এর সরকার বাংলাতে এন আর সি করবে
। আগে তো এন এ পৌছান পরে আর সি করবেন।' তিনি আরো নানান বিষয়ে সোচ্চার হয়ে কংগ্রেস বামফ্রন কে ভোট দিতে মানা করেন এবং তৃনমূলের হাত শক্ত করতে অর্পিতা ঘোষকে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করার কথা বলেন। তিনি কর্মী সমর্থক দের উদ্দ্যেশ্যে বলেন এবার রাজ্যে তৃনমূল কংগ্রেস ৪২ শে ৪২ নিয়ে জিতবে। মুখ্যমন্ত্রী মাননীয়া মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সভা ঘিরে পুলিশি নিরাপত্তা ছিল চোখে পড়ার মত। পাশাপাশি হাজারো তৃনমূল কর্মী সমর্থক কে মুখ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী সভা ঘিরে উন্মাদনার জোয়ারে ভাসতে দেখা যায়। মমতা বন্দোপাধ্যায় ছাড়াও এদিনের সভাতে উপস্থিত ছিলেন, পার্থী অর্পিতা ঘোষ, রাজের সেচ মন্ত্রী রাজীব বন্দোপাধ্যায়, উত্তর দিনাজপুর জেলা সভাপতি অমল আচার্য্য, পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আব্দুস সামাদ, জেলার কৃষি সেচ সমবায় কর্মাধক্ষ মোশারফ হুসেন, ইটাহার ব্লক তৃনমূল সভাপতি অমিত গাঙ্গুলী সহ অন্যান্য ব্লক নেতৃত্ব। এই সভা সেরে তিনি পার্থী কে নিয়ে আবার কপ্টারে চলে যান দক্ষিন দিনাজপুর জেলার বুনিয়াদপুরে নির্বাচনি জন সভায় যোগ দিতে।
Bengali Movie Air Hostess

Loading...

No comments

Powered by Blogger.