উদ্ধার দেড় কেজি সাপের বিষ



অর্ক রায়, মালদা :বাংলাদেশে পাচার হওয়ার পথে প্রায় দেড় কেজি সাপের বিষ উদ্ধার করল সীমান্তরক্ষা বাহিনী।রবিবার গভীর রাতে মালদার গাজোলে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের টোল প্লাজার কাছ থেকে এই সাপের বিষ উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় এক পাচারকারীকে আটক করেছে বিএসএফ। তাকে তুলে দেওয়া হয়েছে পুলিশের হাতে।

বিএসএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, বিএসএফের গোয়েন্দা শাখা গোপন সূত্রে খবর পায় মালদা থেকে দক্ষিণ দিনাজপুর দিয়ে সাপের বিষ বাংলাদেশে পাচার করা হবে। সেইমতো মালদার গাজোলে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের কাছে ফাঁদ পাতে বিএসএফের গোয়েন্দা শাখা।নির্দিষ্ট খবরের ভিত্তিতে একটি গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে এই সাপের বিষ উদ্ধার হয়।পাচারের অভিযোগে মোহাম্মদ ইসমাইল নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে বিএসএফ। এর বাড়ি মালদার পুখুরিয়া এলাকায়। ধৃত ব্যক্তিকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে বিএসএফ।উদ্ধার হওয়া সাপের বিষ একটি বুলেট প্রুফ জারের মধ্যে ছিল। প্রায় দেড় কেজি এই সাপের বিষের মূল্য আনুমানিক বাজারে প্রায় ৬০ লক্ষ টাকা। একই কায়দায় এর আগেও এই একই কায়দায় সাপের বিষ উদ্ধার হয়েছিল এই এলাকা থেকে। এই সাপের বিষ গুলি মূলত বাংলাদেশ মারফত চীনে পাচার হয়। এর থেকে মারণ ওষুধ এবং বহু মূল্যবান মাদক তৈরি হয়। বিদেশের বাজারে এর চাহিদা ব্যাপক। এক বছর আগে মালদার দক্ষিণ দিনাজপুর ও মালদা সীমান্তের দৌলতপুর এলাকা থেকে এই সাপের বিষ উদ্ধার হয়েছিল।মূলত এই সাপের বিষ হিলি সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে পাচার হয়। এই ব্যক্তি কোথা থেকে সাপের বিষ সংগ্রহ করেছিল তা তদন্ত করছে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া সাপের বিষ বনদপ্তর এর হাতে তুলে দিয়েছে বিএসএফ।

বনদপ্তরের আধিকারিক সত্যসুন্দর দেবনাথ বলেন, অভিযুক্তের বিরুদ্ধে একটি নির্দিষ্ট ধারায় মামলা করা হবে। পাশাপাশি এটা কি ধরনের সাপের বিষ তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
Bengali Movie Air Hostess

Loading...

No comments

Powered by Blogger.