ফেসবুক পোষ্ট নিয়ে মুখ খুললেন পৌরপ্রধান

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঁকুড়াঃ গত শনিবার ফেসবুক পোষ্টের মাধ্যমে উষ্মা প্রকাশের এই প্রথম বাঁকুড়া পৌরসভার পৌরপ্রধান মহাপ্রসাদ সেনগুপ্তের বিরুদ্ধে সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরার সামনে মুখ খুললেন উপ পৌরপ্রধান দিলীপ আগরওয়াল। পরিষ্কার দ্ব্যার্থহীন ভাষায় এদিন তিনি বলেন, ''দীর্ঘ দিন ধরেই আমার পৌর প্রধানের সঙ্গে মতানৈক্য চলছে''। প্রায় এক বছর ধরে পৌরসভার নানান উন্নয়নমূলক কাজ তাকে 'সম্পূর্ণভাবে অন্ধকারে রেখে' করা হচ্ছে অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, নিয়মানুযায়ী পৌরবোর্ডের সভা ডাকার আগে উপ পৌরপ্রধানের সঙ্গে আলোচনা করে তারিখ ও আলোচ্যসূচী ঠিক করার কথা। কিন্তু পৌরপ্রধান তা করছেননা বলে অভিযোগ। এই ঘটনার একাধিকবার প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি দলকে জানালেও কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে তার দাবী। ১৯৮২ সাল থেকে রাজনীতি করে আসছি দাবী করে উপপৌরপ্রধান দিলীপ আগরওয়াল আরো বলেন, দিল্লীতে একটি পৌরসভা বিষয়ক আলোচনা সভায় পৌর প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দিয়েছিলাম।

ওখান থেকে কলকাতায় ফিরে তিনি ঐ ফেসবুক পোষ্ট করেন বলে জানান। দীর্ঘদিন তার প্রতি 'অবিচার' করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, বাঁকুড়ায় কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে, কিন্তু আমাকে কাজ করতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। তাই আমি ফেসবুকে পোষ্ট করেছিলাম 'রাজনৈতিক বাধ্যবাধকতায় কাজ করতে পারছিনা'। তিনি তৃণমূলে আছেন ও থাকবেন দাবী করে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসেন উপপৌরপ্রধান। তাঁর দাবী, কোন ধরণের টেণ্ডার ছাড়াই কোটি কোটি টাকার কাজ করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ থাকা সত্বেও পৌরপ্রধান স্বেচ্ছাচারিতার সঙ্গে কয়েক জন 'পেটোয়া' ঠিকাদারকে দিয়ে টেণ্ডার ছাড়াই কোটি কোটি টাকার কাজ করাচ্ছেন বলে তার অভিযোগ। বিষয়টি জেলাশাসক থেকে দলীয় নেতৃত্বকে জানিয়েছেন বলে জানান। একই সঙ্গে মহাপ্রসাদ সেনগুপ্তের পৌরপ্রধান হওয়ার আগে ও পরে কি সম্পত্তি হয়েছে তা তদন্ত করে দেখার অনুরোধ জানান।পৌরপ্রধান মহাপ্রসাদ সেনগুপ্ত উপপৌরপ্রধানের ফেসবুক পোষ্ট নিয়ে কটাক্ষ করে বলেন, দশ ফুট দূরত্বে আমাদের দু'জনের চেম্বার হওয়া সত্বেও এমন কি হলো যে ওনাকে দিল্লীতে বসে ফেসবুকে পোষ্ট দিতে হলো। প্রতিটি কাজের টেণ্ডার হয়েছে দাবী করে তিনি বলেন, উনি প্রমাণ করুন কোন কাজটা টেণ্ডার ছাড়া হয়েছে। ওনাকে বেশ কিছু কাজের দায়িত্ব দেওয়া আছে দাবী করে পৌরপ্রধান বলেন, ওনার বক্তব্যের তদন্ত হোক। সব তদন্তের মুখোমুখি হতে রাজী বলে জানান।
Bengali Movie Air Hostess

Loading...

No comments

Powered by Blogger.