নামখানার হাতানিয়া দোয়ানিয়া সেতুর উদ্বোধন

মৃন্ময় নস্কর, দঃ২৪ পরগনা :মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বপ্নের নামখানার হাতানিয়া দোয়ানিয়া সেতুর উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই নবান্ন থেকে রিমোট কন্ট্রোলের সাহায্যে।নামখানায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্য পূর্ত মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।বকখালি ঘুরতে যাওয়ার এতদিন পর্যটকদের কাছে বেশ কষ্ট সাধ্য ছিল কারণ নামখানা থেকে বারজে অথবা ভটভটি করে হাতানিয়া দোয়োনিয়া নদী পেরিয়ে তবে যাওয়া যেত সমুদ্র সৈকত বকখালি তে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় দীর্ঘ প্রতীক্ষার শেষ হল আজ। নামখানার হাতানিয়া-দোয়ানিয়া নদীর উপর সেতু সংযোগকারী রাস্তা নিয়ে এই সেতুর দৈর্ঘ্য হবে সাড়ে তিন কিলোমিটার মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর কথায় সুন্দরবনের এই সেতু সবথেকে দীর্ঘতম সেতু। এই সেতুটি তৈরি হওয়ার ফলে বকখালি, ফ্রেজারগঞ্জ সরাসরি চলে যাওয়ায় সুন্দরবনের পর্যটন কেন্দ্রের গুরুত্ব বেড়ে গেল। জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ ও রাজ্য সরকারের যৌথ উদ্যোগে ২২৬ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হল দ্বিতীয় হুগলি সেতুর আদলে তৈরি এই সেতু।

 ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে এই সেতুর কাজ শুরু হয়েছিল আর সেই সেতু এত তাড়াতাড়ি উদ্বোধন হবে এই এলাকার মানুষ কোনদিন স্বপ্নেও ভাবতে পারিনি। এই ব্রিজ করতে সবচেয়ে বেশি উদ্যোগ নিয়েছিলন উন্নয়নের হাতিয়ার করে মা মাটি মানুষের সরকার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হাতানিয়া দোয়ানিয়া সেতু মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রজেক্ট। সম্পূর্ণ অন্য ধরনের প্রযুক্তিতে এই সেতু তৈরী করা হয়েছে বলে জানা যায়। অনেকটা উঁচু, যাতে জাহাজ চলাচল করতে কোন অসুবিধা না হয়। এই সেতুর ফলের নামখানা এসে আর নৌকা বা ভটভটি তে উঠতে হবে না। এলাকার মানুষ গাড়ি চড়ে সরাসরি চলে যেতে পারবে সুন্দরবনের প্রত্যন্ত এলাকা বকখালি, ফ্রেজারগঞ্জ, হেনরি আইল্যান্ড। উদ্বোধন করেন মাননীয় পূর্ত মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরা, সাগর ও বকখালি ডেভলপমেন্ট বোর্ড অথরিটি চেয়ারম্যান ও সাগর বিধায়ক বঙ্কিম হাজরা, এলাকার সংসদ চৌধুরী মোহন জাটুয়া, কুলপির বিধায়ক যোগরঞ্জন হালদার প্রমুখ।
Bengali Movie Air Hostess

Loading...

No comments

Powered by Blogger.