মন্দিরে চুরি করতে এসে হাতে নাতে ধরা পরলো চোর





মৌমিতা সিনহা,হুগলী:কথায় বলে চুরি বিদ্যা বরো বিদ্যা যদি না পরো ধরা।সেই কথাই অক্ষরে অক্ষরে মিলে গেলো হুগলীর চন্দননগরে।
চন্দননগরের বারাসত এলাকায় রবিবার ভোরে পর দুটি মন্দিরে চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়।একটি হুনুমান মন্দির ও একটি কালী মন্দিরে এই ঘটনা ঘটে।মন্দিরের প্রণামী বাক্স থেকে টাকা পয়সা এবং বিগ্রহের গায়ে মানত করা গহনা নিয়ে পালাবার চেষ্টা করতেই এলাকাবাসী দের অতপরতায় ধরা পরে যায় চোর।তবে দুইজন চোরের মধ্যে একজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।অার একজনকে হাতে নাতে ধরে ফেলে স্থানীয়রা।ধরা পরা চোরকে বেঁধে রেখে দু একটা চর থাপ্পড় মারার পর পুলিশে খবর দেওয়া হয়।
চন্দননগর কমিশনারেটের পুলিশ এসে ধরা পরা চোরকে নিয়ে যায়।এরপরেই গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, ভোর পাঁচটা নাগাদ কালী মন্দির সংলগ্ন ফুল গাছে ফুল তুলতে যায় একজন এলাকাবাসী ।তখনই সে লক্ষ করে মন্দিরের ভেতর শব্দ হচ্ছে। এর পরেই সে চোর চোর বলে চিৎকার করতেই পথ চলতি মানুষেরা সেখানে গিয়ে মন্দিরের গেট বাইরে থেকে বন্ধ করে দেয়।কিন্তু তারই মধ্য একজন চোর পালাতে সক্ষম হয়।এরপরে একে একে জরো হয় স্থানীয়রা। যদিও পলাতক চোরটি বেশকিছু গহনা ও টাকা পয়সা নিয়ে চম্পট দিয়েছে।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.