সন্তানকে আনতে গিয়ে আক্রান্ত গর্ভধারিণী মা



মৃন্ময় নস্কর, দক্ষিণ ২৪ পরগনা :নিজের জন্ম দেওয়া সন্তান কে আনতে গিয়ে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের হাতে আক্রান্ত মা । অভিযোগ যে অমানবিক ভাবে হাতে দড়ি বেঁধে টানতে টানতে নিয়ে গিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে জুতো কিল চড় রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করে পাশাপাশি চোখ তুলে নেওয়ার চেষ্টা ও গায়ে গরম জল ঢেলে দেয় ।ন্যায় বিচারের আশাই ডায়মন্ড হাবরার জেলা পুলিশের দারস্থ হয়ে লিখত অভিযোগ দায়ের করেন ।

নিজের জন্ম দেওয়া সন্তান কে আনতে গিয়ে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের হাতে আক্রান্ত মা। অভিযোগ যে অমানবিক ভাবে জুতো কিল চড় রড দিয়ে মেরে টানতে টানতে হাতে দড়ি বেঁধে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর করা হয়েছে । ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪পরগণার বিষ্ণুপুর থানার সুলতান গঞ্জের ।আক্রান্ত মায়ের নাম সাগরিকা বিবি । দীর্ঘ ২ আড়াই বছর আগে সাগরিকার স্বামী ইজাজুল সেখের স্টোকে মৃত্যু হয় । তারপর তার দেওর সেখ মুকাদ্দার বৌদি কে বিষয় সম্পত্তি লিখে দেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। সাগরিকা বিষয় সম্পত্তি লিখে দিতে রাজি না হওয়াই লাগাতার কু প্রস্তাব দিতে থাকে । দেওয়ের কু প্রস্তাব রাজি না হওয়াই অত্যাচার চলতে থাকে ক্রমশ অত্যাচারের মাত্রা বাড়তে থাকে সেই অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে বিষ্ণুপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন এবং পরে সাগরিকার আশ্রয় হয় বাপের বাড়ি বোরাহান পুরে এবং পরে ছেলেকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ির যাতায়াত করতে থাকে এবং ১৫ /0২/১৯তারিখে সাগরিকার "জা" ফোন করে ডাকে এবং সাগরিকার ছেলেকে আটকে সাগরিকাকে বেধরক মারধোর শুরু করে । সাগরিকা বিষ্ণুপুর থানা সহ ডায়মন্ড হাবরার জেলা পুলিশের দারস্থ হয়েছে ন্যায় বিচারের আশায় । সন্তান হারা মায়ের শারিরীক যন্ত্রণা দূরে সরিয়ে ফেলে সন্তান হারানোর বেদনার কাতর মা । সাগরিকার ছেলের নাম রাকিবুল সেখ ।
Bengali Movie Air Hostess

Loading...

No comments

Powered by Blogger.