প্রসূতির মৃত্যুকে ঘিরে উত্তেজনা




জয়ন্ত সাহা, আসানসোল :সন্তানসম্ভবা এক যুবতির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল আসানসোল জেলা হাসপাতালে। মৃতার নাম হেমলতা রাউত (১৮)। তিনি হিরাপুরের সাঁতাডাঙার নিমতলার বাসিন্দা। শনিবার হেমলতার পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে ভাঙচুর চালায়। দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক জয়ন্ত গাঙ্গুলিকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।
তিনদিন আগে হেমলতা রাউত একটি বেসরকারি হাসপাতালে প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। শনিবার রাতে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে আসানসোল জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। আসানসোল জেলা হাসপাতালের ইমারজেন্সি বিভাগের চিকিৎসকদের দাবি, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই রোগীর মৃত্যু হয়েছিল। যদিও হেমলতার পরিবার সে কথা মানতে নারাজ। তাঁদের অভিযোগ, চিকিৎসায় গাফিলতির কারণে হেমলতার মৃত্যু হয়েছে।
পাশাপাশি মৃতার পরিবারের লোকজন দাবি করেন, হেমলতা মারা গেলেও তাঁর সন্তানের ডেলিভারি করতে হবে। চিকিৎসকরা জানান, মায়ের সাথে সাথে সন্তানেরও মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু হেমলতার পরিবার সেই কথা মানতে না চেয়ে হাসপাতালের ইমারজেন্সি বিভাগে ভাঙচুর চালায়। অভিযোগ, দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক জয়ন্ত গাঙ্গুলিকেও মারধর করা হয়। খবর পেয়ে আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।
Bengali Movie Air Hostess

Loading...

No comments

Powered by Blogger.