বিদ্যাদেবীর উপর ভরসা কম: শরণাপন্ন লক্ষীদেবীর!





জয়ন্ত সাহা, আসানসোল :   আসানসোল দক্ষীন থানার অন্তর্গত মহিশীলা কলোনীর পাল পাড়ার বাসিন্দা বছর তিরিশের প্রভাত রায় সব্জী বিক্রী করে সংসার চালায়,ভালই চলছিল ব্যাবসা কিন্তু এলাকায় পাশাপাশি আরও কয়েকটা সব্জী দোকান খুলে যাওয়াতে ব্যাবসায় ভাটা পড়ে যায়।সামনেই সরস্বতী পূজো, গতবছর সরস্বতী প্রতিমার বিশাল চাহিদা ছিল।এ বছরে ভাল ব্যাবসা হবে ভেবে সরস্বতী প্রতিমা কিনে বিক্রীর সিদ্ধান্ত নেয়, কিন্তু বাদ সাধল প্রকৃতি।দু দিন ধরে বৃষ্টি র কারনে প্রতিমার সে রকম চাহিদা নাই, যে আশায় প্রতিমা কিনে লক্ষীর মূখ দেখবে ভেবেছিল সে আশায় জল ঢেলে দিল প্রকৃতি।অতঃপর শরণাপন্ন হতে হলো দেবী লক্ষীর,প্রতিমা বিক্রীর পাশাপাশি লটারীর টিকিট বিক্রি করা শুরু করলো।এখানোও আশা একবার যদি ভাগ্য লক্ষী প্রসন্ন হন তাহলে হয়তো তার ভাগ্যের চাকা ঘুরে যাবে।ভাগ্য বদলের জন্য সব্জী থেকে প্রতিমা তারপর লটারির টিকিট বিক্রি ক্রমাগত সংঘর্ষ।এবছর দুদিন সরস্বতী পূজো হলেও  সেই চাহিদা না থাকার ফলে হতাশ প্রভাত।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.