গঙ্গাসাগরে পূর্ণ্যার্জনে কাতারে কাতারে পূর্ণার্থী!সঙ্গে নাগা সাধুরা


ভিনরাজ্য থেকে লোক আসছে কাতারে কাতারে। পূর্ণ্যারথীদের স্বাগত জানাতে তৈরী সাগরদ্বীপ। কপিলমুনির  মন্দির, সাগর তট সহ গোটা মেলা প্রাঙ্গণে এখন সাজ সাজ রব। তার সাথে পাল্লা দিয়ে সেজে উঠছে কাকদ্বীপের লট ৮ থেকে মুড়িগঙ্গা নদীর অপর প্রান্তে কচুবেড়িয়া, নামখানা থেকে চেমাগূড়ি ও বেনুবন  জেটিঘাট পর্যন্ত। সব জায়গাতেই এখন চলচ্ছে শেষ পর্বের কাজ।কোথাও লাগছে রঙের প্রলেপ, কোথাও চলছে বাঁশের কাঠামোর উপর হোগলা দিয়ে ছাউনি কাজ, কোথাও তৈরী হচ্ছে ভিআইপি কর্টেজ, মেগা কন্ট্রোল রুম। তীর্থ যাত্রীদের থাকার জন্য আধুনিক তাবু তৈরির কাজ একেবারে শেষ লগ্নে। সব মিলিয়ে পূর্ণ্যারথীদের স্বাগত জানাতে তৈরী সাগর দ্বীপ ।গঙ্গা সাগর মেলা শুরু হতে এখনও বাকি ছয় দিন।

 কিন্তু এখন থেকেই পুণ্যারথীদের দল নামতে শুরু করেছে। এখন কাকদ্বীপের  লট ৮ এর জেটি তে দেখা গেলো পুণ্যারথীদের লম্বা লাইন। কপিল মুনির মন্দিরের সামনে পৌঁছে দেখা গেলো পুণ্যারথীদের ভিড়ে জমজমাট গোটা এলাকা। ছয় সাতটি বাস ভর্তি হয়ে এসেছে জওয়ানরা তাদের পরিবার নিয়ে উদ্দেশ্য পূজা দেওয়া। সাগর তটে যাওয়ার রাস্তার দু ধারে বসেছে দোকানদার রা পসরা নিয়ে। মন্দিরের পাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে নাগা সাধুরা।ধূপ কাঠি, ঝুড়ি নিয়ে সাগর তটে হাজির দোকানিরা। সেখানে স্থানের ভিড়। গামছা কাঁধে ধুতি পরে সাগর সংগ্মে  ডুব দেওয়া। একপ্রকার মোক্ষ লাভ মনে করেন ভিন রাজ্যের পূর্ণ্যারথীরা।
Bengali Movie Air Hostess

Loading...

No comments

Powered by Blogger.