‘আমাকে দেখার জন্যই হলে ঢুকবে দর্শক’


অনাবৃত পিঠ। ঢুলু ঢুলু চোখ। শরীরের আবেদন। স্বস্তিকা মানেই বাংলা সিনেমার ভোলাপচুয়াস চরিত্র। তবে শাহাজান রিজেন্সি’র কমলিনী একটু অন্যরকম।

স্বস্তিকা বিশ্বাস করেন, সৃজিত মুখোপাধ্যায় যেভাবে কমলিনীকে একেছেন তা দর্শকের ভালো লাগবে এবং দাগ কেটে যাবে। কমলিনীর চরিত্রে স্বস্তিকার ওঠা, বসা, দাঁড়ানো, কথা বলা- যে ভাবনা পরিচালকের মাথায় ছিল, তা থেক দু’ইঞ্চিও এদিক-ওদিক হয়নি। আর সে কারণেই হয়তো এই ছবিতে স্বস্তিকার চরিত্র হয়ে উঠবে ‘চেরি অন দ্য কেক’ ।বক্ষ বিভাজিকা, কামাতুর আবেদনের সঙ্গেই স্বস্তিকার চরিত্রে জুড়েছে ‘ইন্টেলেকচুয়াল অর্গ্যাজম’। ‘শাহাজান রিজেন্সি’ ছবিতে স্বস্তিকার চরিত্রের নাম কমলিনী। মানুষ কমলিনীর কাছে আসে সেই বৌদ্ধিক উত্তেজনার জন্যই।
অভিনেত্রীর কথায়, তাকে দেখতেই হলে ঢুকবে দর্শক। বাকি কুশীলবদের দেখুক চাই না দেখুক, কমলিনীকে কোনও ভাবেই মিস করবে না দর্শক। ছবি রিলিজের আগে ঠিক এতটাই প্রত্যয়ী অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।
প্রসঙ্গত, এই ছবিতে স্বস্তিকার সঙ্গে একই ফ্রেম শেয়ার করতে দেখা যাবে অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্যকেও। সেটা প্রথবারও বটে। ছবিতে রয়েছে পরমব্রত, আবির, অঞ্জন দত্তের মতো তারকারাও।
শাহাজান রিজেন্সি মূলত শঙ্করের (মণি শঙ্কর মুখোপাধ্যায়) লেখা চৌরঙ্গী উপন্যাসের আধারেই নির্মিত। ১৯৬২ সালে এই উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছিল। পরে ১৯৬৮ সালে পরিচালক পিনাকী ভূষণ মুখোপাধ্যায় এই উপন্যাস থেকে একটি সিনেমাও তৈরি করেন। যার মূল চরিত্রে ছিলেন মহানায়ক উত্তমকুমার।
ঠিক তার পাঁচ দশক পর ফের রুপালি পর্দায় আসছে শঙ্করের চৌরঙ্গী। সেটাও নতুন আঙ্গিকে। আর সেকারণেই ছবি নিয়ে খুব স্বাভাবিক ভাবেই আকাশছোঁয়া প্রত্যাশা রয়েছে সিনেপ্রেমীদের। ছবি রিলিজ করবে চলতি মাসেরই ১৮ তারিখে।
Loading...

No comments

Powered by Blogger.