অস্ট্রেলিয়াদের হার থেকে বাঁচাতে পারে বৃষ্টি



ফলোয়ানের লজ্জা এড়াতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া৷ তবে ঘরের মাঠে ইনিংস হারের লাঞ্ছনা থেকে অজিদের বাঁচাতে পারে প্রকৃতি৷ অন্তত চতুর্থ দিনের গতিপ্রকৃতি দেখে মনে হওয়া স্বাভাবিক যে, প্রকৃতি সদয় টিম পেইনদের প্রতি৷মেলবোর্নে বক্সিং ডে টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে ফলো-অন করানোর সুযোগ ছিল ভারতের সামনে৷ তবে হাতে পর্যাপ্ত সময় থাকায় বিরাট কোহলি ফলো-অনের লজ্জা থেকে মুক্তি দিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়াকে৷ বদলে সেবার নিজেরা ব্যাট করে অজিদের ঘাড়ের বোঝাটা আরও বাড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বিরাট৷ এমসিজি’তে অস্ট্রেলিয়াকে ফলো-অন না করানোয় ভারতীয় সমর্থকরা বিস্ময় প্রকাশ করলেও টিম ইন্ডিয়ার জয় আটকায়নি তাতে৷এবার সিডনিতে অজিদের ফলো-অন করানোর সুযোগ হাতছাড়া করেনি ভারত৷ নিজেরা দ্বিতীয় দফায় ব্যাট করতে নামলে টেস্ট ড্র হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল হয়ে দাঁড়াত৷ ভারতের জয়ের সম্ভাবনা প্রায় থাকতই না৷ অস্ট্রেলিয়াকে পুনরায় ব্যাট করতে ডাকায় টিম ইন্ডিয়ার জয়ের সম্ভাবনা প্রবল হয়ে দেখা দেয়৷ শুধু তাই নয়, অজিদের ইনিংসে হারার সম্ভাবনাও উঁকি দিচ্ছে এসসিজি’তে৷তবে আর যাই হোক, সিডনিতে সিরিজের শেষ টেস্টে ভারতের হারের সম্ভাবনা নেই৷ অর্থাৎ অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ভারতের প্রথমবার টেস্ট সিরিজ জিতে ইতিহাস গড়া প্রায় নিশ্চিত৷ এখন দেখার যে ভারতের সিরিজ জয়ের ব্যবধান কী দাঁড়ায়৷ টেস্ট ড্র হলে কোহলিরা সিরিজ জিতবে ২-১ ব্যবধানে৷ জয় তুলে নিয়ে ভারত সিরিজে ব্যবধান বাড়িয়ে ৩-১ করে ফেলবে৷ ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট ৩-১’এর লক্ষ্যেই ১৯৮৬ সালের পর আবার অস্ট্রেলিয়াকে তাদের ঘরের মাঠে ফলো-অনে বাধ্য করায়৷এক্ষেত্রে ভারতের সিডনি টেস্ট জয়ের অন্তরায় হয়ে দাঁড়াতে পারে প্রকৃতি৷ চতুর্থ দিনে মোটে একটি সেশন খেলা হতে পেরেছে প্রকৃতি বিরূপ হয়ে দাঁড়ানোয়৷ বৃষ্টির জন্য দিনের প্রথম সেশনের খেলা ভেস্তে যায়৷ দ্বিতীয় সেশনে সাকুল্যে ২৫.২ ওভার খেলা হয়েছে৷ মন্দ আলোয় শেষ চায়ের বিরতির পর আর বল পড়েনি সিডনির বাইশগজে৷ আপাতত চতুর্থ দিনের শেষে অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় ইনিংসে বিনা উইকেটে ৬ রান তুলেছে৷ কুলদীপ-জাদেজা জুটির জোড়া স্পিন আক্রমণের সামনে শেষ দিনে অজি ব্যাটসম্যানরা কতটা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে, সেটাই এখন দেখার৷ আপাতত ভারত এখনও এগিয়ে রয়েছে ৩১৬ রানে৷
Loading...
Powered by Blogger.